নীলফামারীতে কলেজছাত্র করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, ৭ বাড়ি লকডাউন

জেলা প্রতিনিধি, নীলফামারী: নীলফামারীতে এবার এক কলেজছাত্র করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন। তার বাড়ি জেলার জলঢাকা উপজেলার ধর্মপাল ইউনিয়নের মাঝপাড়া গ্রামে। তাকে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি ওই এলাকার সাতটি বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যায় নীলফামারীর সিভিল সার্জন ডা. রনজিত কুমার বর্মন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, গত এক সপ্তাহ আগে নীলফামারী সরকারি কলেজের ওই শিক্ষার্থী নিজ বাড়িতে জ্বর ও পাতলা পায়খানায় আক্রান্ত হন। ৮ এপ্রিল ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হলে ১১ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ করে রংপুর মেডিকেলে পাঠায় স্বাস্থ্য বিভাগ। এরপর সুস্থ বোধ করায় ওই দিনই তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়। এরপর তিনি নিজ বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। রংপুর মেডিকেল কলেজ থেকে সোমবার বিকেলে রির্পোট আসলে তার করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে।

সিভিল সার্জন ডা. রনজিত কুমার বর্মন জানান, সংক্রমণ রোধে ওই ছাত্রের গ্রামের সাতটি বাড়ি লকডাউন করেছে প্রশাসন।

এদিকে এ নিয়ে জেলায় মোট চারজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন। গত ৭ এপ্রিল কিশোরীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ঢাকা ফেরত এক চিকিৎসক, ৯ এপ্রিল সৈয়দপুরের খাতামধুপুর ইউনিয়নের নারায়ণগঞ্জ ফেরত এক যুবক ও ১১ এপ্রিল ডিমলা উপজেলার বালাপাড়া ইউনিয়নের গাজীপুর ফেরত এক কিশোরের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি নিশ্চিত করে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

স্বাআলো/এসএ