ভয়কে জয় করে একসঙ্গে তিন সন্তান জন্ম দিলেন নারায়ণগঞ্জের ফেরদৌসী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা: মহামারি করোনাভাইরাসের ভয়কে জয় করে বৈশাখের প্রথম দিন একসঙ্গে তিন সন্তান জন্ম দিয়েছেন এক মা। ১০ বছর সংসার জীবনের সাধনায় একসঙ্গে তিন সন্তান জন্ম দিলেন নারায়ণগঞ্জের ফেরদৌসী বেগম। একসঙ্গে তিন সন্তানের জন্ম হওয়ায় আনন্দে মেতে ওঠেন ফেরদৌসীর পরিবারের সদস্যরা।

ফেরদৌসী বেগমের সিজারিয়ান অপারেশনে অংশ নিয়েছেন নারায়ণগঞ্জের গাইনি চিকিৎসক কামরুন্নাহার ও তার দুই ছেলে চিকিৎসক সাদ ও সামি। মা ও তিন নবজাতক সুস্থ রয়েছে বলে জানিয়েছেন ডা. কামরুন্নাহার।

করোনার সংক্রমণ এড়াতে এবং মা ও নবজাতকদের নিরাপত্তার স্বার্থে মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ঢাকার একটি হাসপাতালে ফেরদৌসী বেগমের সিজারিয়ান অপারেশন করেন তিন চিকিৎসক।

গাইনি চিকিৎসক কামরুন্নাহার বলেন, করোনাভাইরাসের ভয়কে জয় করে পহেলা বৈশাখে একসঙ্গে তিন সন্তান জন্ম দিয়েছেন ফেরদৌসী বেগম। দীর্ঘ ১০ বছরের সংসার জীবনের সাধনায় এই প্রথম তাদের সন্তান হলো। মহান আল্লাহর অশেষ মেহেরবানিতে খুবই সুন্দরভাবে অপারেশন সফল হলো।

কামরুন্নাহার বলেন, মা ও তিন নবজাতক সুস্থ রয়েছে। এর মধ্যে এক পুত্রসন্তান ও দুটি কন্যাসন্তান। ওজন একটু কম হওয়ায় এক নবজাতককে এনআইসিইউতে রাখা হয়েছে। সিজারিয়ান অপারেশনে আমাকে সহযোগিতা করেছে আমার দুই ছেলে ডা. সাদ ও ডা. সামি।

তিনি আরো বলেন, কত বিস্ময়-বেদনা জাগানিয়া দৃশ্য দেখছি প্রতিদিন। দেখছি কত আর্তনাদ-আহাজারি। এসবের মধ্যেও শুনি সুরেলা ধ্বনি। আমার কাছে সবচেয়ে সুখকর ধ্বনি ডেলিভারির পরপরই নবজাতকের কান্না।

ডা. কামরুন্নাহার বলেন, অচেনা আজকের বৈশাখে নতুনের আগমন নতুন করে আশার আলো জোগায়। সবার জন্য বয়ে আনে মঙ্গলবার্তা। করোনার অন্ধকারে ছেয়ে যাওয়া অমাবস্যার রাত ভোর হবেই। উঠবে একটি সোনালি সূর্য। করোনামুক্ত একটি সুন্দর আগামীর প্রত্যাশায় সবাই নিরাপদে ঘরে থাকুন, আমরা আছি বাইরের যুদ্ধে। আমরা সচেতন হই এবং সবার জীবন রক্ষা করি।

স্বাআলো/এসএ