করোনা আতঙ্কের মধ্যেই বন্যার শঙ্কা

সিলেট ব্যুরো: চলতি সপ্তাহের শেষ বা আগামী সপ্তাহের শুরুতেই সিলেট অঞ্চলে বন্যার আশঙ্কা করছে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র। ভারতে ভারী বর্ষণের কারণে বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় অঞ্চল আকস্মিক বন্যার মুখে পড়তে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

এতে করে সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার কয়েকটি স্থান প্লাবিত হতে পারে।

সপ্তাহখানেক আগে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র সূত্র জানিয়েছিল, আগামী ১৭ থেকে ২০ এপ্রিল ভারী বর্ষণে সুনামগঞ্জ ও সিলেটের হাওরাঞ্চলে আগাম আকস্মিক বন্যা হতে পারে।

কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া তখন বলেছিলেন, ১৭ থেকে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত ভারতের মেঘালয় ও আসামের বরাক অববাহিকায় ১৫০ থেকে ২৫০ মিলিমিটার এবং ত্রিপুরা অববাহিকায় ১০০ থেকে ১২০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়াও দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলেও বৃষ্টিপাত হবে।

এর ফলে মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদীগুলোতে বৃদ্ধি পাবে পানি। সেইসাথে ছোট নদীগুলোর পানি পাহাড়ি ঢলের কারণে বিপদসীমা অতিক্রমের আশঙ্কা প্রকাশ করে তিনি জানিয়েছিলেন, এতে সুনামগঞ্জ ও সিলেটের হাওরাঞ্চলে আকস্মিক বন্যা হতে পারে।

এদিকে আবহাওয়া অফিসের তথ্য বলছে, আগামীকাল ২১ এপ্রিল, মঙ্গলবার থেকে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ভারী বৃষ্টিপাত হবে। রংপুর, নীলফামারী, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রামসহ দেশের মধ্যাঞ্চলেও সপ্তাহখানেক ধরে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

এই সময় থেকে চলতি মাসের শেষ পর্যন্ত কোথাও দমকা হাওয়া, বজ্রসহ শিলাবৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে তারা।

স্বাআলো/এসএ