কুষ্টিয়ায় পুলিশ-ঘটকসহ করোনায় আক্রান্ত তিন

জেলা প্রতিনিধি, কুষ্টিয়া: অবশেষে কুষ্টিয়া জেলাও করোনায় আক্রান্ত হলো।  প্রথমবার তিনজন করোনা শনাক্ত হয়েছে। তিন জনই পুরুষ। ডিএমপিতে কর্মরত পুলিশের এক এসআই (৩২) ঢাকা থেকে নমুনা পরীক্ষা করিয়ে গতরাতে কুষ্টিয়ায় এসে জানতে পারেন তিনি করোনা পজিটিভ।

তার বাড়ি কুষ্টিয়ার খোকসার ওসমানপুর গ্রামে। গ্রামটি লকডাউন করা হয়েছে।  অন্যদিকে বুধবার সকালে আইইডিসিআর থেকে আসা টেষ্ট রিপোর্টে এ তথ্য পাওয়া গেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার তাপস কুমার সরকার বলেন, আক্রান্ত একজনের বাড়ি কুষ্টিয়া শহরের আড়ুয়াপাড়ায়, তার বয়স ৩০ বছর। সে সম্প্রতি তার চাকরিস্থল মাদারীপুর জেলা থেকে এসেছে। অপরজন কুমারখালী উপজেলার কয়া ইউনিয়নের গট্টিয়া গ্রামে, তার বয়স ৬৯ বছর। তার পেশা বিয়ে ঠিক করা (ঘটকালি বা ঘটক)। বিয়ে ঠিক করতে তিনি বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়াতেন।

আক্রান্ত দু’জনই নিজ নিজ বাড়িতে অবস্থান করছিল। আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত হবার পর আজ সকালে জেনারেল হাসপাতাল থেকে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় তাদেরকে হাসপাতালের আইসোলেশনে আনা হয়েছে। তবে দু’জনই মোটামুটি সুস্থ আছেন বলে জানান তিনি।

ডাক্তার তাপস জানান, করোনার উপসর্গ থাকায় অনুমান তিন চারদিন এ দু’জনের নমুনা সংগ্রহ করে যশোরে পাঠানো হয়। পর্যায়ক্রমে এসব রিপোর্ট হাতে এসে পৌছাচ্ছে। এ পর্যন্ত করোনা পরীক্ষার জন্য ৩৩৯ জনের নমুনা ঢাকা,খুলনা ও যশোরে পাঠানো হয়। এরমধ্যে ১৪৬ জনের রিপোর্ট এসেছে। দুই জন ছাড়া সবাই করোনা নেগেটিভ।

এদিকে, কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন বলেন, আক্রান্তদের বাড়িসহ আশেপাশের কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। এছাড়াও তাদের সংস্পর্শে আসা মানুষদের শনাক্ত চলছে, তাদেরকেও হোমকোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ইতোমধ্যেই কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে করোনা টেষ্টের পিসিআর ল্যাব উদ্বোধন করা হয়েছে। এখন মেশিন পরীক্ষা চলছে, আগামী দু’একদিনের মধ্যে পরীক্ষা শুরু হবে।

স্বাআলো/এসএ