শিশুকে শারীরিক নির্যাতন, পল্লী চিকিৎসক আটক

জেলা প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় নামে এক পল্লী চিকিৎসকের বিরুদ্ধে সাত বছরের এক শিশুকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।

অভিযুক্ত পল্লী চিকিৎসক সোলায়মান শাহকে (৪০) ধরে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে এলাকাবাসী। শনিবার দুপুরে কোটালীপাড়া উজেলার বুজুরগোকোনা গ্রামের ওই ডাক্তারের চেম্বারে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের শিকার ওই শিশু স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী।

নির্যাতনের শিকার ওই শিশুর মা জানান, হঠাৎ করে আমার মেয়ের শরীরের অ্যালার্জি দেখা দিলে বাড়ির কাছে পল্লী চিকিৎসক সোলায়মান শাহ’র কাছে নিয়ে যাই। এ সময় আমার মেয়েকে চিকিৎসার জন্য ওই ডাক্তারের কাছে রেখে বাড়িতে ধান নাড়তে চলে আসি। পরে আমার মেয়ে বাড়িতে এসে আমার কাছে সব কিছু বলে।

এ ব্যাপারে কোটালীপাড়া থানার ওসি শেখ লুৎফর রহমান বলেন, ওই শিশুর মা বিষয়টি এলাকার লোকজনকে জানালে তারা ওই ডাক্তার সোলায়মান শাহকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই ডাক্তারকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

তিনি আরো বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই ডাক্তার শিশুটিকে শারীরিক নিয্যাতনের কথা স্বীকার করেছে। এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আগামীকাল রবিবার আটককৃতকে আদালতে পাঠানো হবে।

স্বাআলো/এসএ