করোনা থেকে সুস্থ হলেন কিশোরগঞ্জের সাত পুলিশ কর্মকর্তা

জেলা প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জ: কিশোরগঞ্জের ভৈরব থানায় কর্মরত সাতজন পুলিশ সদস্য করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হয়েছেন। রবিবার তাদেরকে ছাড়পত্র দিয়ে নিজ নিজ বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তারা হলেন কনস্টেবল আব্দুস সামাদ (৪৫), দুলাল কবির (৩৫), জামাল উদ্দিন (৩৫), তানজিল আহম্মেদ (২৪), আমিনুল ইসলাম (২৮), আব্দুর রহিম (৩০) ও সোনিয়া আক্তার (২৬)। কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অনির্বাণ চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, কনস্টেবল আব্দুস সামাদ গত ১৬ এপ্রিল হালকা কাশি অনুভব করলে তাকে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় আইইডিসিআর-এ পাঠানো হয়। গত ১৭ এপ্রিল নমুনা পরীক্ষায় তার করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। পরদিন তাকে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের আইসোলেশনে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় গত ২৩ এপ্রিল দ্বিতীয় ও ২৮ এপ্রিল তৃতীয় নমুনা পরীক্ষায় করোনা নিগেটিভ পাওয়ায় আজ রবিবার তাদেরকে ছাড়পত্র দেয়া হয়। চিকিৎসকের পরামর্শে তাকে নিজ বাড়িতে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়।

এদিকে কনস্টেবল দুলাল কবির ও জামাল উদ্দিন হালকা কাশি অনুভব করলে গত ১৬ এপ্রিল তাদেরকে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআর-এ পাঠানো হয়। ১৭ এপ্রিল নমুনা পরীক্ষায় তাদের করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। পরে ট্রমা সেন্টারের অধীনে তাদেরকে নিজ নিজ বাসায় আইসোলেশনে রাখা হয়।

এছাড়া কনস্টেবল তানজিল আহম্মেদ, আমিনুল ইসলাম, আব্দুর রহিম ও সোনিয়া আক্তার সর্দি-জ্বরে আক্রান্ত হলে গত ১৮ এপ্রিল তাদেরকে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআর-এ পাঠানো হয়। ১৯ এপ্রিল নমুনা পরীক্ষায় তাদের করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে নারী কনস্টেবল সোনিয়া আক্তারকে ট্রমা সেন্টারের অধীনে তার নিজ বাসায় আইসোলেশনে রাখা হয়।

এছাড়া কনস্টেবল তানজিল আহম্মেদ, আমিনুল ইসলাম ও আব্দুর রহিমকে ট্রমা সেন্টারের অধীনে ভৈরব শহীদ আইভি রহমান স্টেডিয়ামে আইসোলেশনে রাখা হয়। গত ২৫ এপ্রিল দ্বিতীয় ও ২৯ এপ্রিল তৃতীয় নমুনা পরীক্ষায় তাদের করোনা নিগেটিভ পাওয়া যায়। ফলে আজ রবিবার তাদেরকে ছাড়পত্র দেয়া হয়। পরে চিকিৎসকের পরামর্শে তাদেরকে নিজ নিজ বাড়িতে সাতদিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়।

স্বাআলো/এসএ