ত্রাণ নিয়ে স্বজনপ্রীতি, প্রতিবাদ করায় আলীগ নেতার নাকে ঘুষি

চট্টগ্রাম ব্যুরো : নিজের পছন্দ মতো ব্যক্তিদের ত্রাণ দেয়ার অভিযোগ করায় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যের হামলায়  আহত হয়েছেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন। সোমবার সকালে মিরসরাইয়ের হিঙ্গুলী ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার সাইফুল ইসলাম এ হামলা করে।

কর্মহীন ও দুস্থদের মাঝে সরকারি ত্রাণ বিতরণে স্বচ্ছতা আনতে প্রতিটি ওয়ার্ডে কমিটি গঠনের নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। দেশের বিভিন্ন জায়গায় ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ ওঠার পর এই পদক্ষেপ নেয়া হয়। হিঙ্গুলী ইউনিয়নে কমিটি গঠন করা হলেও সমন্বয় না করে ত্রাণ বিতরণের অভিযোগ তোলেন আওয়ামীলীগ নেতা আলতাফ হোসেন। বিষয়টি হিঙ্গুলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিনকে জানাতে গেলে ওই আওয়ামী লীগ নেতার ওপর চড়াও হন ৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য সাইফুল।

হিঙ্গুলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সোনামিয়া বলেন, ত্রাণ বিতরণে গঠিত কমিটি সমন্বয়হীনভাবে ত্রাণ বিতরণ করছে বলে ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন আমাকে সোমবার সকালে জানান। আমি তাকে বিষয়টি বিষয়টি ইউপি চেয়ারম্যানকে জানানোর পরামর্শ দেই। আলতাফ পরিষদে গিয়ে বিষয়টি চেয়ারম্যানকে জানানোর সময় ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলামের সাথে বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে সাইফুল মেম্বার আলতাফের নাকে ঘুষি মেরে জখম করে। খবর পেয়ে আলতাফের ভাই নুর হোসেন পরিষদের দিকে যাওয়ার প্রাক্কালে তাকেও সাইফুল মেম্বার মারধর করে। বর্তমানে আহত আলতাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সাইফুল মেম্বার বলেন, ত্রাণ বিতরণের বিষয় নিয়ে আলতাফের সাথে তার কথা বাকবিতন্ডা হয়েছে। এসময় ধাক্কাধাক্কিতে আলতাফ নাকে আঘাতপ্রাপ্ত হয়। মারধর করা হয়নি।

জোরারগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই সিরাজুল ইসলাম জানান, হিঙ্গুলী ইউনিয়নের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা আলতাফ হোসেন থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বাআলো/কে