ট্রাকের ধাক্কায় নিমিষেই তিনটি জীবনের স্বপ্ন ভেঙে চুরমার

জেলা প্রতিনিধি, বগুড়া : বগুড়ার শাজাহানপুরে ট্রাকের ধাক্কায় ছেলে-মেয়েসহ পা হারিয়েছেন এক বাবা। বৃহস্পতিবার সকাল নানা বাড়ি থেকে ছেলে আসিফ (১২) ও মেয়ে রওজাকে (৭) মোটরসাইকেলে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন বাবা লিটন মন্ডল (৩৫)। ফেরার পথে দ্রুতগামী একটি ট্রাকের ধাক্কায় নিমিষেই তিনটি জীবনের স্বপ্ন ভেঙে চুরমার।

এক সঙ্গে পা হারালেন বাবা ও শিশু পুত্র-কন্যা। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শাজাহানপুর উপজেলার আড়িয়া বাজার এলাকায় ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার শিকার লিটন মন্ডল বগুড়ার শেরপুর ঘোষপাড়ার নবির মন্ডলের ছেলে। তার শেরপুরে সকাল বাজারে চায়ের দোকান রয়েছে।

লিটন মন্ডলের স্বজনরা জানান, ছেলে আসিফ ও মেয়ে রওজা বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার মোকামতলা নানাবাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিল। সেখান থেকে তাদেরকে নিয়ে বাবা লিটন মন্ডল মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি ফিরছিলেন। ফেরার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তিন জনেরই ডান পা কেটে ফেলতে হবে বলে জানিয়েছেন সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মোটরসাইকেলটি রাস্তার পাশ দিয়েই যাচ্ছিল। বিপরীত দিক থেকে আসা একটি দ্রুতগামী ট্রাক একটি গাড়ি ওভারটেক করতে গিয়ে হঠাৎ করে রাস্তার ডান পাশে এসে মোটরসাইকেলটিকে সজোরে ধাক্কা দেয়।

শাজাহানপুর থানার এসআই ডেভিড হিমাদ্রী বর্মা জানান, আহতরা বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। দুর্ঘটনা কবলিত ট্রাকটি (নারায়ণগঞ্জ-ড-০০৬৯) আটক করা হয়েছে। তবে চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছেন।

স্বাআলো/এসএ