দুস্থের চাল আত্মসাতে মহিলা মেম্বারও পিছিয়ে নেই

জেলা প্রতিনিধি,চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে ১৬ মাস ধরে এক দুঃস্থের ভিজিডির চাল আত্মসাৎ করে আসছিলেন এক মহিলা মেম্বার। ৩০ কেজি চালের বস্তা তার বাড়ি যাওয়ার সময় পুলিশের হাতে আটক হয়। পরে আটককৃত চাল উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট জমা দেয় পুলিশ। তিনি হলেন গোমস্তাপুর ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য মোসলেমা বেগম।

গোমস্তাপুর থানার উপ-পরিদর্শক কামরুজ্জামান জানান, গত শুক্রবার দুপুরে উদ্ধার করা হয়।

গোমস্তাপুরের জাহিদনগর গ্রামের সেরাজুল ইসলাম স্ত্রী সাবিনা বেগমের নামে ভিজিডি কার্ড তৈরি করে ১৬ মাস ধরে চাল উত্তোলন করে আসছিলেন মোসলেমা বেগম। সাবিনা বেগম তা জানতেন না। গত শুক্রবার তার নামের চাল পুলিশের কাছে ধরা পড়ার পর ঘটনাটি জানাজানি হয়।

মোসলেমা বেগম চাল আত্মসাতের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সাবিনার নামে উত্তেলিত চাল তাকে না দিয়ে দুঃস্থদের মাঝে বিতরণ করা হয়।
ওই ইউনিয়নের ট্যাগ অফিসার বিএমডিএর সহকারী প্রকৌশলী জামিলুর রহমান চাল উত্তোলনে অনিয়মের বিষয়টি তার জানা নেই বলে জানান।

ইউপি চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন মন্ডল জানান, ছবিযুক্ত কার্ডের সুবিধাভোগীকেই চাল দেয়া হয়। পরে চালের কেউ অপব্যবহার করলে তা তার দায়িত্ব।

স্বাআলো/কে