কেন পুরুষরাই বেশি করোনার শিকার, গবেষণায় উঠে এল নির্দিষ্ট কারণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে দিশেহারা গোটা বিশ্ব। এই ভাইরাসের ধ্বংসযজ্ঞে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে বিশ্বের আধুনিক চিকিৎসাবিজ্ঞান। এখনও পর্যন্ত এর প্রতিষেধক আবিষ্কার করতে পারেননি তারা।

করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী এখন পর্যন্ত (সোমবার সকাল পৌনে ১০টা) আক্রান্ত হয়েছে ৪১ লাখ ৮০ হাজার ৯২২ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৮৩ হাজার ৮৬৮ জনের।

করোনায় বিশ্বব্যাপী এই আক্রান্ত ও প্রাণহানির শিকারদের অধিকাংশই পুরুষ। বিভিন্ন প্রতিবেদন অনুযায়ী, করোনায় নারী তুলনায় ৬১ শতাংশেরও বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যুর শিকার পুরুষরা।

তবে এবার গবেষণায় উঠে এল এর নির্দিষ্ট কারণ। এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন রবিবার প্রকাশ হয়েছে ‘ইউরোপিয়ান হার্ট জার্নাল’- এ। নেদারল্যান্ডসের ইউনিভার্সিটি মেডিকেল সেন্টার গ্রোনিঞ্জেনের এক দল চিকিৎসক গবেষণাটি করেছেন। এতে বলা হয়েছে, পুরুষের শরীরে এক ধরনের এনজাইম রয়েছে, যা করোনাভাইরাসকে শরীরে ঢুকতে সহায়তা করে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, পুরুষের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রতঙ্গে বিশেষ করে ফুসফুস, কিডনি ও হৃদযন্ত্রে “অ্যাঞ্জিওটেনসিন-কনভার্টিং এনজাইম ২ (ACE2)” নামের এনজাইম রয়েছে, যা করোনাভাইরাসকে শরীরে ঢুকতে এবং শরীরের ভেতরে সুস্থ সেলগুলোতে সংক্রমণ ঘটাতে সহায়তা করে।

গবেষণায় বলা হয়, ACE2 হল শরীরের ভেতরে সেলগুলোর ওপর করোনাভাইরাসকে দ্রুত কাছে টেনে নেয়। কাছে পেলেই এটি করোনাভাইরাসকে আবদ্ধ করে ফেলে। এরপর যখন কোষের পৃষ্ঠের ওপর এই ভাইরাস অন্য প্রোটিনে (TMPRSS2) পরিবর্তিত হয়, তখন এটিকে ভিতরে ঢুকতে ও সুস্থ সেলগুলোতে সংক্রমণ ঘটাতে সহায়তা করে এই এনজাইম (ACE2)।

পুরুষের ফুসফুসে ACE2 এর উচ্চমাত্রার উপস্থিতি পাওয়া গেছে, যা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর ফুসফসকে বিকল করে দিতে কার্যকর ভূমিকা পালন করছে। সূত্র: কোর্টহাউজনিউজ

স্বাআলো/এসএ