জীবিত সন্তানকে মৃত বলে গর্ভপাত করার পরামর্শ জনসেবা ক্লিনিকের

জেলা প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুরে অবস্থিত জনসেবা ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের আল্ট্রাসনোগ্রাফির ভূল রিপোর্টের কারণে গর্ভের সন্তান হারাতে বসেছিলেন এক প্রসূতি।

জানা যায় গত বৃহস্পতিবার (৭মে) উপজেলার আলীনগর মকরমপুর ঘুন্টি গ্রামের মোস্তাক আলীর প্রায় ৫ মাসের অন্তঃসত্তা স্ত্রী ফেরদৌসি বেগম (৩৫) তার সন্তানের অবস্থা জানতে ওই ক্লিনিকের চিকিৎসক মোজাম্মেল হকের কাছে আল্ট্রাসনোগ্রাফি করেন।

রিপোর্টে তার সন্তানকে মৃত দেখানো হয় এবং তাকে ডিএনসি (গর্ভপাত) করার পরামর্শ দেয়া হয়। রিপোর্ট নিয়ে তাদের সন্দেহ হলে তারা পরের দিন শুক্রবার (৮মে) রহনপুর জেনারেল হাসপাতাল ও আলমদিনা ক্লিনিকে পুনরায় দু’দফা আল্ট্রাসনোগ্রাফি করেন।

পরীক্ষায় তাদের সন্তান জীবিত ও সুস্থ রয়েছে বলে দুটি রিপোর্টেই বলা হয়। ভূল রিপোর্ট দেয়া প্রসঙ্গে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক ডা. মোজাম্মেল হকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি তার দেয়া রিপোর্টের বিষয়ে ভূল স্বীকার করলেও ডিএনসি করার পরামর্শ দেয়ার বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন।

তিনি বলেন আমার দেয়া রিপোর্টে সন্দেহ থাকায় অন্য জায়গায় আল্ট্রাসনোগ্রাফি করার পরামর্শ দেয়া হয়েছিল রুগীর স্বজনদের।

এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১১ এপ্রিল রাতে ওই ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় এক প্রসূতির মৃত্যু হয়। একই ক্লিনিকে একই চিকিৎসক বার বার ভূল চিকিৎসা অব্যাহত রাখলেও তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এখনও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় তা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন উঠেছে।

স্বাআলো/এসএ