এক হাতে ট্রাকের দড়ি, অন্য হাতে শিশু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতে লকডাউনের জেরে দেশটির পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশার কথা বেশ কিছুদিন ধরেই সংবাদমাধ্যমের শিরোনাম হচ্ছে। এবার সামনে এসেছে ২০ সেকেন্ডের এক ভিডিও। তাতে দেখা যাচ্ছে, ভিড়ে ঠাসা একটি ট্রাকে উঠতে চেষ্টা করছেন কয়েকজন শ্রমিক। তাদের মধ্যে একজন এক হাতে ট্রাকের দড়ি ধরে অন্য হাতে কোলের ছোট্ট শিশুটিকে ছুড়ে দিতে চাইছেন ট্রাকে। শিশুটির মা তার হাতে তুলে দিয়েছিলেন শিশুটিকে। ছত্তিশগড়ের এই ঘটনা আরো একবার ভারতে পরিযায়ী শ্রমিকদের নিদারুণ অসহায়ত্ব সবার চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিলো।

ভিডিওতে কোলের শিশুকে গাড়িতে তোল‌ার চেষ্টা করতে দেখা গেছে আরো এক ব্যক্তিকে। নারীদেরও শাড়ি পরে কষ্ট করে ট্রাকে উঠার চেষ্টা ছিল লক্ষ্যণীয়।

কয়েকজন শ্রমিক সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি-কে জানিয়েছেন, নিরুপায় হয়ে তারা তেলেঙ্গানা থেকে বাড়ি ফিরতে ট্রাককে বেছে নিয়েছেন।

এক বৃদ্ধের ভাষায়, কী করবো? আমরা অসহায়। আমাদের ঝাড়খণ্ডে যেতে হবে। বাধ্য হয়ে ট্রাকে উঠতে হচ্ছে। আর কোনও উপায় নেই।

কেন্দ্রীয় সরকারের পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বিশেষ ট্রেন সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা এমন কোনও খবর পাইনি।

ট্রাকটির কাছেই দাঁড়িয়ে ছিলেন রাজ্যের পরিবহন সেক্টরের একজন কর্মকর্তা। তিনি বলেন, প্রশাসনের উচিত ওদের জন্য বিশেষ বাস চালু করা। আমি পরিবহণ দফতরেই আছি। কিন্তু আমার পর্যায়ের ব্যক্তির পক্ষে বাসের ব্যবস্থা করে দেওয়া সম্ভব নয়।

গত মার্চের শেষ দিকে ভারতে লকডাউন জারি হয়ে যাওয়ার পর থেকেই পরিযায়ী শ্রমিকরা নিজেদের গ্রামে ফেরার চেষ্টা করতে থাকে। উপায় না পেয়ে অনেকে দীর্ঘ পথ পায়ে হেঁটে পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করে। এটা করতে গিয়ে পথেই বহু পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু হয়।

গত সপ্তাহে মহারাষ্ট্রে রেললাইনের উপরে ঘুমিয়ে পড়া ১৬ পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু হয় ট্রেনে কাটা পড়ে। গত রবিবার পরিযায়ী শ্রমিকদের একটি দলের পাঁচ জনের মৃত্যু হয় ট্রাক দুর্ঘটনায়। সূত্র: এনডিটিভি

স্বাআলো/এসএ