বাগেরহাটে কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি  ধান কেনা শুরু

জেলা প্রতিনিধি, বাগেরহাট : বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলায় শতভাগ স্বচ্ছতা রেখে এবং রামপাল ও কচুয়া উপজেলায় লটারী করে কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি বোরো ধান কেনা  শুরু  হয়েছে। সরকার নির্ধারিত মূল্যে সাধারণ কৃষকরা যাতে সরাসরি  তাদের উৎপাদিত ধান সরকারের কাছে বিক্রি করতে পারে সে জন্যই এ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা সার্বক্ষাণিক মনিটরিংসহ এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।  ফকির উপজেলা নির্বাহী অফিসার  শাহনাজ পারভিনের  উপস্থিতি ও তদারকিতে মঙ্গলবার থেকে ধান কেনা শুরু হয়েছে।  ক্রয় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ফকিরহাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান স্বপন দাস।

ইউএনও জানান, ফকিরহাট উপজেলায় ১ হাজার ৩০ টন ধান কেনার লক্ষমাত্রা নিয়ে  ২৬ টাকা কেজি দরে জন প্রতি এক টন করে লটারির মাধ্যমে  ১ হাজার ৩০ জন কৃষক নির্ধারণ করা হয়েছে। একই ভাবে কচুয়া উপজেলায়ও বোরোধান কেনা শুরু  হয়েছে। কুচুয়া উপজেলার নির্বাহি অফিসার  সুজিৎ দেবনাথের উপস্থিতিতে  মঙ্গলবার কৃষি বিভাগ ও খাদ্য বিভাগ  সমন্বয়ে লটারি করে ৬৫৯ জন কৃষক নির্ধারণ করে তাদের নিকট থেকে ৬৫৯ টন ধান ক্রয় করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। একইভাবে জেলার রামপাল উপজেলায় ৫১৩ জন কৃষক নির্ধারন করে  ৫১৩ টন বোরো ধান কেনা শুরু হয়েছে। এ ধান ক্রয় কাজ  উদ্বোধন করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) শোভন সরকার।

বাগেরহাট জেলা খাদ্য কর্মকর্তা মনোতোষ কুমার মজুমদার বলেন, জেলায় এবার ৬ হাজার ৪১৮ টন বোরো ধান কেনা হবে। সরকার নির্ধারিত ১ হাজার ৪০ টাকা মণ দরে সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে এ ধান কেনায়  লটারির মাধ্যমে কৃষক নির্ধারণ করা হয়েছে। নির্বাচিত কৃষকদের তালিকা উপজেলা কৃষি ও খাদ্য কর্মকতার কার্যালয়ে  টানিয়ে দেয়া হয়েছে।

স্বাআলো/কে