৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে গণপরিবহন চলবে, খুলছে না শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা: আগামী ৩০ মের পর থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে গণপরিবহন চলাচল শুরু হচ্ছে। আজ বৃহস্পতিবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এখই খুলে দেয়া হচ্ছে না।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, উক্ত নিযেধাজ্ঞাকালে কেউ কর্মস্থল ত্যাগ করতে পারবে না। তবে উক্ত সময়ে শর্তসাপেক্ষে সীমিত পরিসরে নির্দিষ্ট সংখ্যক যাত্রী নিয়ে স্বাস্থ্যসম্মত বিধি নিশ্চিত করে গণপরিবহন, যাত্রীবাহী নৌযান ও রেল চলাচল করতে পারবে। তবে সর্বাবস্থায় মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ থেকে জারি করা নির্দেশনা কঠোরভাবে মেনে চলা নিশ্চিত করতে হবে। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগ এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা জারি করবে।

প্লেন চলাচলেও বিধিনিষেধ তুলে দেওয়া হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, উড়োজাহাজ কর্তৃপক্ষ নিজ ব্যবস্থাপনায় প্লেন চলাচলের বিষয় বিবেচনা করবে।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগের আওতাধীন সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

জ্ঞাপনে ১৩ দফা বিভিন্ন স্বাস্থ্য বিধি দেয়া হয়েছে। তা আগামী ৩১ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, এই নিষেধাজ্ঞাকালে এক জেলা থেকে অন্য জেলায় যাতায়াত করা যাবে না। প্রতিটি জেলায় থাকবে চেকপোস্ট। স্কুল কলেজ বন্ধ থাকবে ১৫ জুন পর্যন্ত, চলবে অনলাইনে ক্লাস।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে গত ২৩ শে মার্চ সরকার প্রথম দফায় ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে।

পরে দ্বিতীয় দফায় ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত, তৃতীয় দফায় ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত ও চতুর্থ দফায় ৫ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বর্ধিত করা হয়। এরপরও পরিস্থিতির উন্নত না হওয়ায় পঞ্চম দফায় ১৬ মে এবং সর্বশেষ ৩০ মে পর্যন্ত ছুটি বৃদ্ধি করে সরকার।

স্বাআলো/ডিএম