বাগেরহাটে ক্যান্সার আক্রান্ত কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা

জেলা প্রতিনিধি, বাগেরহাট : বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলায় মাদক দ্রব্য বেচা-কেনা নিয়ে মারপিটে আছিবুর সেখ (১৫) নামের ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত এক কিশোর নিহত হয়েছে।

রবিবার সকালে বাড়ি থেকে মায়ের সাথে চিতলমারী হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। শনিবার বিকেলে আছিবুর শেখ বাড়ি থেকে বের হয়ে মাদক সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে স্থানীয়দের মারপিটে আহত হয়ে রাত ১২ টার দিকে বাড়িতে যায়। ব্লাড ক্যান্সারের রোগী হওয়ায় হাফিজ সেখ রাত থেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় সকালে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন এবং থানা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে চিতলমারী থানা পুলিশ হাসপাতাল থেকে লাশের সুরতহাল করে ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করে।

চিতলমারী থানার ওসি মীর শরিফুল হক চিতলমারী হাসপাতালের চিকিৎসক ও ওই কিশোরের মায়ের বরাত দিয়ে জানান, উপজেলার শিবপুর দক্ষিনপাড়া গ্রামের এমদাদুল সেখের ছেলে আছিবুর সেখ গত ২ বছর ধরে ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত। এ অবস্থায়ও সে মাদক দ্রব্য বেচা-কেনার সাথে জড়িত বলে স্থানীয়রা জানায়। আর ওই মাদক দ্রব্য নিয়ে এলাকার লোকেরা তাকে মারপিট করেছে। শরীরে লাঠির আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। যেহেতু তাকে মারপিট করার আলামত রয়েছে। ফলে এ ঘটনায় হত্যা মামলা রের্কড হবে। আর ময়না তদন্ত প্রতিবেদন আসলে মৃত্যুর মূল কারণ জানা যাবে।

স্বাআলো/এসএ