যশোর ও বগুড়ার উপ-নির্বাচন নিয়ে নিজেদের সিদ্ধান্ত জানালো বিএনপি

ডেস্ক রিপোর্ট: আগামী ১৪ জুলাই বগুড়া-১ এবং যশোর-৬ আসনের উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তবে করোনার প্রাদুর্ভাবের মধ্যে এই ভোটে  না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি।

আজ রবিবার বিকালে বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির এক ভার্চুয়াল বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মির্জা ফখরুল বলেন, দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে এই উপনির্বাচনে না যাওয়ার পক্ষে মতামত গ্রহণ করা হয়েছে। দেশে করোনার বর্তমান পরিস্থিতিতে কোনোভাবেই নির্বাচনে অংশ নেয়ার পরিবেশ নেই বলেই তারা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

অপরদিকে মির্জা ফখরুলের বরাত দিয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সনের মিডিয়া উইং সদস্য শায়রুল কবির খান বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণের মহামারী এবং বন্যার মধ্যে নির্বাচন কমিশন বগুড়া -১ এবং যশোর-৬ সংসদীয় আসনে নির্বাচনী তারিখ ঘোষণাকে অযৌক্তিক ও অগ্রহণযোগ্য বলে মনে করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটি। তাই বিএনপি এই দুই আসনের উপনির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না।

শনিবার ইসির সিনিয়র সচিব আলমগীর এক বৈঠক শেষে আগামী ১৪ জুলাই বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনের উপ-নির্বাচন তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানান।

এরআগে গত ফেব্রুয়ারিতে নির্বাচন কমিশন ২৯ মার্চ এই দুই আসনে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছিল। তবে করোনার কারণে ২১ মার্চ তা স্থগিত করা হয়।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য আবদুল মান্নান ও ইসমত আরা সাদিকের মৃত্যুর পর বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসন শূন্য হয়। গত ফেব্রুয়ারিতে ইসি এই দুই আসনের তফসিল ঘোষণা করে।

স্বাআলো/ডিএম