চৌগাছায় পুকুরে বিষ দিয়ে ৭ লাখ টাকার পোনা নিধন

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি: যশোরের চৌগাছায় পূর্ব শত্রুতার জেরে এক মাছ চাষীর পুকুরে বিষ (গ্যাস ট্যাবলেট) দিয়ে ৮৫ হাজার পাবদা মাছের পোনা ধ্বংস করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই মাছ চাষীর আনুমানিক ৭ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে চৌগাছা থানায় লিখিত অভিযোগে জানিয়েছেন তিনি।

১৭ জুলাই শুক্রবার ভোর রাতের কোন একসময় উপজেলার ফুলসারা ইউনিয়নের জামিরা গ্রামে দেব মিত্র নামের এক মৎস চাষীর পুকুরে এই ঘটনা ঘটে ।

চৌগাছা থানায় লিখিত অভিযোগে দেব মিত্র বলেন, উপজেলার ফুলসারা ইউনিয়নের জামিরা গ্রামে আমার তিন বিঘা জমিতে পাবদা মাছ চাষের একটি পুকুর আছে।

গত ০৯ জুন আমি ওই পুকুরে ৮৫ হাজার পাবদা মাছের পোনা ছেড়েছি। ১৭ জুলাই ভোররাত ৩টা থেকে ৪টার মধ্যে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা আমার পুকুরে বিষ দিয়ে সব মাছ মেরে ফেলেছে। যাতে আমার অনুমান ৭ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

আরো পড়ুন>>>  চৌগাছায় ঈদগাহ ও মাদরাসার জমি দখল করে আ.লীগ নেতার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ

পুকুরের মালিক দেব মিত্র বলেন, স্থানীয় কতিপয় ব্যক্তি আমার ও আমার পরিবারের সাথে দীর্ঘদিন ধরে শত্রুতা করে আসছে। তার সূত্র ধরে গত ৫ জুলাই গ্রামের বিল্টু দখিয়ে দেব মিত্র এর জীবন নাশের হুমকি দিলে তিনি ৬ জুলাই
চৌগাছা থানায় একটি সাধারন ডায়েরি করেন। তারাই শত্রুতা করে পুকুরে বিষ প্রয়োগ করতে পারেন বলে তিনি ধারণা করছেন।

ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নং জামিরা ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন বলেন, দেব মিত্রের পুকুরে ভোরের দিকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা বিষ প্রয়োগ করে চলে যায়। শুক্রবারে সকালে ওই পুকুরের মাছ মরে ভেসে উঠে। এতে তার অনেক টাকার ক্ষতি হয়েছে। বিষয়টি খুবই অমানবিক।

বিষ প্রয়োগের বিষয়টি মৌখিকভাবে জানতে পেরে চৌগাছা থানার এসআই গিয়াস উদ্দিন ঘটনাস্থলে যান। তিনি জানান, মাছ মারা গেছে। তবে কে বা কারা কিভাবে মেরেছে তা এ মুহুর্তে বলা যাচ্ছে না। আগে থানায় জিডির বিষয়টিও তিনি জানেন না বলে জানান।

সন্ধ্যায় চৌগাছা থানার ডিউটি অফিসার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মিজানুর রহমান লিখিত অভিযোগ পাওয়ার বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, এখন ওসি স্যার একজন কর্মকর্তাকে তদন্তের দায়িত্ব দেবেন। বিষয়টি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বাআলো/এসএ