১০ লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি, ৯জনের মৃত্যু

 জেলা প্রতিনিধি, জামালপুর : জামালপুরে বুধবার সকাল থেকে আবারও পানি বাড়ত শুরু করেছে। ফলে মানুষের বাড়ছে দুর্ভোগ।ইতোমধ্যে বন্যার পানিতে ডুবে ৯জন মারা গেছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে জেলার ১০ লক্ষাধিক মানুষ। জেলার প্রধান নদী যমুনা ও ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

১২ ঘণ্টায় যমুনা নদীর পানি বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে  ৫ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ৮৮ সেন্টিমিটার ও জগন্নাথগঞ্জ ঘাট এলাকায় ১১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

অপরদিকে পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের পানি ৩ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে জামালপুর ফেরিঘাট পয়েন্টে বিপৎসীমার ৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) এর নির্বাহী প্রকৌশলী  আবু সাঈদ এ তথ্য জানান।

এদিকে অব্যাহত বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে পানি বাড়ায় জেলায় ৩য় দফা বন্যা আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। টানা বন্যায় দিশেহারা হয়ে পড়েছে বন্যার্তরা। এ পর্যন্ত বন্যায়  প্রায় ১০ লক্ষাধিক মানুষ প্রায় ২৫ দিন ধরে পানিবন্দি হয়ে পরেছে। চলমান তৃতীয় দফা বন্যায় জেলার ৭টি উপজেলার ৪৯টি ইউনিয়নের ৬৭৭টি গ্রাম এখন পানির নিচে রয়েছে।

জামালপুরে ত্রাণ ও পুর্নবাসন অফিস সূত্রে জানা যায়, বন্যায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলির মধ্যে সবচেয়ে দেওয়ানগঞ্জ ও ইসলামপুর উপজেলা। এছাড়া অন্যান্য উপজেলাতেও বন্যার তাণ্ডব চলছেই।

বন্যায় দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার দুই লাখ ১১ হাজার ৫০২ জন, মাদারগঞ্জ উপজেলায় এক লাখ  ৯৮ হাজার ২৭০ জন, মেলান্দহ উপজেলায় এক লাখ ৫১ হাজার ৯১১ জন,সরিষাবাড়ী উপজেলায় এক লাখ ৪৭ হাজার ৮৮৭ জন, ইসলামপুর উপজেলায় এক লাখ ৪৩ হাজার ৭৫০ জন, বকশীগঞ্জ উপজেলায় ৭৩ হাজার ৮৬৪ জন এবং জামালপুর সদর উপজেলায় ৬৭ হাজার ৫২৩ জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। ৭ উপজেলায় প্রায় ১০ লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি হয়ে চরম দুর্ভোগের সঙ্গে দিন কাটাচ্ছে।

জামালপুরে এ বছর বন্যার পানিতে ডুবে এ পর্যন্ত দুইজন শিশুসহ ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এবারের বন্যায় মৎস্য খাতেও ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। জেলা মৎস্য কর্মকর্তা কায়সার মুহাম্মদ মঈনুল হাসান জানান, এবারের সব বন্যায় জেলার মৎসজীবীদের প্রায় ১০ কোটি টাকার মাছ বন্যায় ভেসে গেছে।

জামালপুর ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা  নায়েব আলী জানান, এবারের বন্যায় ৪১০ মেট্রিক টন চাল, ১৯ লাখ টাকা, ৪ হাজার ৫০০ প্যাকেট শুকনো খাবার, দুই লাক টাকার শিশু খাদ্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

স্বাআলো/কে