যশোরের কেশবপুরে দুইটি লাশ উদ্ধার

কেশবপুর: যশোরের কেশবপুরে `বন্দুকযুদ্ধে’ মনিরুজ্জামান ওরফে মনির (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। সোমবার ভোরে উপজেলার দোরমুটিয়া ইটভাটার কাছ থেকে তার লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত মনির উপজেলার দোরমুটিয়া গ্রামের বাসিন্দা। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় হত্যাসহ ১৫টি মামলা রয়েছে।

কেশবপুর থানার ওসি জসিম উদ্দীন বলছেন, সোমবার গভিররাতে মাদক ব্যবসায়ীদের দুই গ্রুপের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের সংবাদ পেয়ে পুলিশ দোরমুটিয়া গ্রামে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। এসময় দোরমুটিয়া গ্রামের ইটভাটার কাছে গুলিবিদ্ধ এক যুবককে পড়ে থাকতে দেখা যায়। পুলিশ তাকে উদ্ধার করে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে, সোমবার সকালে  কেশবপুরের দক্ষিণ চাদড়া  গ্রামের দত্তপাড় থেকে সাধন কুমার দত্ত (৫৫) নামে এক চাল ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। অজ্ঞাত ব্যক্তিরা শ্বাসরোধ করে হত্যা করে বাড়ির পাশে কলাবাগানে ফেলে রেখে যায়। নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

কেশবপুর থানার ওসি জসিম উদ্দিন জানান, এলাকাবাসীর সংবাদে পুলিশ সাধন কুমার দত্তের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। এঘটনায় তদন্ত চলছে। থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

স্বাআলো/ডিএম