ঝিকরগাছায় রাস্তা থেকে ধরে নিয়ে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৪

যশোরের ঝিকরগাছায় স্বামী পরিত্যক্ত এক মহিলা গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পৌরসদরের পুরন্দপুর সাদ্দামপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে ৯৯৯-এ ফোনের সূত্রধরে থানা পুলিশ ভিকটিমকে উদ্ধার করে ধর্ষক গ্রেফতারে অভিযান চালায়।

আরো পড়ুন>>>  চৌগাছায় ৪টি ক্লিনিক বন্ধের নির্দেশ, পোড়ানো হলো দুই ভুয়া ডাক্তারের চিকিৎসাপত্র

আজ সকালে পুলিশ চার ধর্ষককে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত ধর্ষকরা হলো, পুরন্দপুর গ্রামের আব্দুল জলিল (২৩), একই গ্রামের জাকির হোসেন (২০), আলম হোসেন (৩০) ও হাসানুর রহমান (২০)। সকালে ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য যশোর ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। থানায় এ ঘটনায় এগারো জনের নামে একটি ধর্ষণ মামলা করা হয়।

ঝিকরগাছা থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে পুরন্দপুর গ্রামের স্বামী পরিত্যক্ত ওই মহিলা রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় তাকে ধরে গণধর্ষণ করা হয়। এ সময় ধর্ষকরা তাকে রাস্তার পাশে আব্দুর রাজ্জাকের ঘাষের ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে ট্রেন লাইনের উপর ফেলে রেখে যায়। অচেতন অবস্থায় এক পথচারী তাকে দেখে ৯৯৯ এ ফোন করেন। ফোনের সুত্রধরে সেখান থেকে ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়।

ওইরাতেই অভিযানে নেমে সকালে বিভিন্ন স্থান থেকে চার ধর্ষক গ্রেফতারে করা হয়।

ওসি আব্দুর রাজ্জাক আরো জানান, ধর্ষকরা সকলেই মাছ ধরার জাল টানা কাজ করে। আসামিদের স্বীকারোক্তির জন্য বিকেলে আদালতে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে তাদেরকে রিমান্ড চাওয়া হবে।

স্বাআলো/এসএ