দুর্গাপূজা মন্দির প্রাঙ্গণেই সীমাবদ্ধ থাকবে

ডেস্ক রিপোর্ট : করোনা মহামারির কারণে আসন্ন  দুর্গাপূজা শুধু মন্দির প্রাঙ্গণেই সীমাবদ্ধ থাকবে। আলোকসজ্জা, মেলা, আরতি প্রতিযোগিতা ও কোনো ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা হবে না।

এছাড়া আগামী মঙ্গলবার হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম উত্সব জন্মাষ্টমীও সীমিত পরিসরে উদ্যাপন করা হবে। জন্মাষ্টমীতে কোনো প্রকার সমাবেশ, শোভাযাত্রা ও মিছিল করা হবে না। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মন্দির প্রাঙ্গণে পূজা অনুষ্ঠান ও সব আচারবিধি পালন করা হবে।

গতকাল শনিবার বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মিলন কান্তি দত্ত এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, এবারের দুর্গোত্সবের অনুষ্ঠানমালা পূজা-অর্চনার মাধ্যমে মন্দির প্রাঙ্গণেই সীমাবদ্ধ থাকবে বলে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এবার খোলা জায়গায় অস্থায়ী প্যান্ডেলে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে পূজা করার বিষয়েও সংশ্লিষ্ট আয়োজকদের অনুমতি নিতে হবে।

হিন্দু পঞ্জিকামতে এবার দুর্গোত্সবের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে ২৩ অক্টোবর। সেদিন শুক্রবার, মহাসপ্তমী পূজার মাধ্যমে শুরু হবে দুর্গোত্সবের মূল আচার অনুষ্ঠান।

রাজধানীর পূজা নিয়ে ঢাকা মহানগর সর্বজনীন পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক কিশোর রঞ্জন মণ্ডল বলেন, এ বছর পূজার সংখ্যা কমে যাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে সবার আর্থিক অবস্থাও ভালো না। তাছাড়া পুরান ঢাকার দিকে বেশকটি পূজা রাস্তায় হতো। সেগুলোর অনুমতি পাওয়ার প্রশ্ন রয়েছে। যদি অনুমতি পাওয়া যায়, তবে পূজা হবে। মনে হচ্ছে, সারা দেশেই পূজার সংখ্যা বেশ কমবে।

স্বাআলো/কে