জন্মদিনের ফুল আনতে গিয়ে লাশ হলো দুই বন্ধু

জন্মদিন পালনের জন্য ফুল কিনতে যাওয়ার পথে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরল শ্যামল কাব্য দাস (২১) ও তার বন্ধু কাজী মুশফিক মাহামুদ প্রিয় (২৪)।

মঙ্গলবার বেলা তিনটার দিকে যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের ঝিকরগাছার বেনেয়ালী গীর্জার সামনে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় তারা নিহত হয়েছেন। নিহত শ্যামল কাব্য দাস যশোর মিশনপাড়ার বাসিন্দা দিলিপ দাসের ছেলে এবং ঢাকা কমার্স কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র। তার বন্ধু কাজী মুশফিক মাহামুদ প্রিয় যশোর শহরের সার্কিটহাউজ পাড়ার বাসিন্দা মাহামুদুল হাসানের ছেলে এবং মাগুরা সরকারি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র।

প্রত্যক্ষদর্শী নিহতদের অপর দুই বন্ধু আব্দুল্লাহ আল আমান ও সাম্ভি খান সঞ্জু জানিয়েছেন, আজ শ্যামল কাব্য দাসের জন্মদিন ছিল। তাই তারা চার বন্ধু মিলে দুইটি মোটরসাইকেল যোগে ঝিকরগাছার গদখালীতে ফুল কিনতে যাচ্ছিলেন। আব্দুল্লাহ আল আমান ও সাম্ভি খান সঞ্জু সামনের মোটরসাইকেলে ছিল। ঘটনাস্থলে পৌছলে তারা বিকট শব্দ শুনে পেছনের দিকে তাকিয়ে দেখে তাদের দুই বন্ধু কাজী মুশফিক মাহামুদ প্রিয় ও শ্যামল কাব্য দাস রাস্তার উপর এবং তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি রাস্তার পাশে পড়ে আছে। তখন একটি কাভার্ডভ্যান দ্রুত চলে যাচ্ছে। তাদের ধারণা অজ্ঞাত কাভার্ডভ্যানটি সামনের দিক থেকে ধাক্কা দিয়ে চলে যায়। এসময় আব্দুল্লাহ আল আমান ও সাম্ভি খান সঞ্জু স্থানীয়দের সহযোগীতায় তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত্যু ঘোষনা করেন।

থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নাভারন সার্কেল) জুয়েল ইমরান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং নিহতদের সুরোতহাল রিপোর্টও করা হযেছে।

স্বাআলো/এসএ