১০৭ নারী ও শিশু ধর্ষিত

ঢাকা : গত জুলাই মাসে দেশে ১০৭ নারী ও কন্যাশিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এই এক মাসেই ২৩৫ নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের লিগ্যাল এইড উপপরিষদে সংরক্ষিত ১৩টি দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে এ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ডা. মালেকা বানু স্বাক্ষরিত প্রতিবেদনে দেখা যায়, ১০৭ জনের মধ্যে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ৯০ জন, গণধর্ষণের শিকার ১৪ জন, ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে তিন জনকে। এছাড়া ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে ৯ জনকে। উক্ত সময়ে শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছেন তিন জন। প্রতিবেদন মতে গত এক মাসে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে মোট পাঁচটি।

প্রতিবেদনে আরো দেখা যায়—এ সময় বিভিন্ন কারণে ৪৬ নারী ও কন্যাশিশুকে হত্যা করা হয়েছে। যৌতুকের কারণে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ১৫ জন, তন্মধ্যে যৌতুকের কারণে হত্যা করা হয়েছে সাত জনকে। যৌতুকের কারণে নির্যাতন করা হয়েছে ছয় জনকে। শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে চার জন। উক্ত সময়ে ছয় জন গৃহপরিচারিকা নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। এদের মধ্যে শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন চার জন।

বিভিন্ন নির্যাতনের কারণে ১০ জন আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছেন, আত্মহত্যার প্ররোচনার শিকার হয়েছেন আরও দুই জন। ১৮ জনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বাল্যবিবাহের শিকার হয়েছে পাঁচ জন এবং সাইবার ক্রাইমের শিকার হয়েছে আরো পাঁচজন।

স্বাআলো/কে