বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে ছাত্রলীগ কর্মীদের জ্ঞানচর্চায় মনোযোগী হতে হবে: এমপি নাবিল

যশোর-৩ আসনের সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর জীবন থেকে শিক্ষা নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ভবিষ্যতের সুনাগরিক হতে হবে। সেই জন্য বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী, আমার দেখা নয়া চীনসহ তার গ্রন্থগুলো মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে। বেশি বেশি পড়াশোনা করে জ্ঞানের পরিধি বাড়াতে হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

সোমবার শহরের দড়াটনা ভৈরব চত্বরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

যশোর শহর ও সদর উপজেলা ছাত্রলীগ আয়োজিত এই আলোচনা সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুল।

অনুষ্ঠানের শুরুতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ আয়োজিত শোক দিবসের আলোচনা সভার কার্যক্রম প্রজেক্টরের মাধ্যমে দেখানো হয়। ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের সভাপতিত্বে এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। অনুষ্ঠানটি সঞ্চলনা করেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

দড়াটানায় চত্বরে শহর ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহবায়ক রেজওয়ান হোসেন মিথুনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি জামাল হোসেন শিমুল, সাবেক সহ-সভাপতি জাবের হোসেন জাহিদ, সাবেক সহ-সভাপতি ও সরকারি সিটি ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি খন্দকার মারুফ হুসাইন ইকবাল, সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আহসানুল করীম রহমান, যুগ মাহাবুব আলম বিদ্যুৎ, সাবেক উপ-সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক এসএম রয়েল ও সাবেক সদস্য মিনারুল ইসলাম।

শহরের ৯টি ওয়ার্ড ও সদর উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন থেকে কয়েক হাজার মানুষ এই অনুষ্ঠানে অংশ নেন। ফলে দড়াটানার ভৈরব চত্বরের আলোচনা সভাটি ছাত্র সমাবেশে পরিণত হয়। বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা মনোযোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ শোনেন।

আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য কাজী শাহিন, সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক মাজহারুল ইসলাম মাজহার, কচুয়া ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক ইশারত আলী, যুবলীগ নেতা রাজু আহমেদ রাজু, হৈবতপুরের ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন, চুড়ামনকাটি ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক মেহেদী হাসান রুনু, সরকারি এমএম কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ইমরান হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ ইয়াসিন আরাফাত তরুন, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য ও লেবুতলা ইউনিয়নের আহবায়ক রুহুল কুদ্দুস, সদস্য তারেক ওয়াদুদ আকাশ, সোহেল রানা রনি, তুহিন ইসলাম, মুকিত ইসলাম, রাকিব ইসলাম, অপু ইসলাম, চুড়ামনকাটি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহবায়ক তানভীর হাসান রকসি, বসুন্দিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক শাকিবুজ্জামান শাকিল, নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সবুজ হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা আলী রাজ, রিজভী ইসলাম প্রমুখ।

স্বাআলো/এসএ