বাঁশঝাড়ে নিয়ে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে ধর্ষণ, ৩ জনের ফাঁসির আদেশ

রাজবাড়ীতে গণধর্ষণ মামলায় ৩ আসামির বিরুদ্ধে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। এ সময় আসামিদের এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে (সংশোধনী) ২০০৩ এর ৯ (৩) ধারায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শারমিন নিগার এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো, সদর উপজেলার মজলিসপুরের রানা মোল্লা (২৪), খানখানাপুর দত্ত পাড়ার মামুন মোল্লা (২০) ও মজলিসপুরের হান্নান সরদার (২৬)।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী নারী ২০১৮ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকা থেকে গোপালগঞ্জের উদ্দেশে রওনা হন। সন্ধ্যার পর রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ মোড়ে পৌঁছালে গোপালগঞ্জের কোনো বাস না পেয়ে অপেক্ষা করতে থাকেন। এমন সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রানা মোল্লা ও মামুন মোল্লা ইজিবাইক নিয়ে এসে বলেন, ‘এখন বাস পাবেন না। ফরিদপুর গেলে বাস পাবেন।’

সরল বিশ্বাসে তিনি ওই ইজিবাইকে ওঠেন। পথিমধ্যে বসন্তপুর থেকে হান্নান সরদার ইজিবাইকে উঠে অশালীন আচরণ শুরু করে। এক পর্যায়ে বসন্তপুর আখ সেন্টারের পাশে বাঁশঝাড়ে নিয়ে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে তাকে গণধর্ষণ করে আসামিরা। অনেক অনুরোধের পর ভোরে তাকে ছেড়ে দেন তারা। এরপর তিনি দৌড়ে গিয়ে ফরিদপুর র‌্যাব ক্যাম্পকে মৌখিকভাবে বিষয়টি জানান এবং ২৫ ফেব্রুয়ারি রাজবাড়ী সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

রাজবাড়ীর সহকারী পিপি অ্যাডভোকেট খান জহুরুল হক রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্বাআলো/এসএ