যে পাঁচ খাবার শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

শরীর ও স্বাস্থ্য ঠিক রাখার জন্য পুষ্টিকর ও সুষম খাবার প্রয়োজন। আমরা একটু খাবারের প্রতি সচেতন হলে সুস্থ সবল, সুন্দর থাকতে পারি। শরীর স্বাস্থ্য ঠিক রাখার জন্য ও বিভিন্ন অসুখ-বিসুখ হতে রক্ষা পেতে হলে সব ধরনের ভিটামিন জাতীয় পুষ্টিকর খাবার খাওয়া দরকার। বিশেষ করে চারিদিকে ভাইরাল জ্বরে ভুগছেন অনেকে। মৌসুমী বদলের সময় জ্বর কিংবা ফ্লু থেকে বাঁচতে প্রয়োজন ব্যালেন্স-ডায়েট। বাইরের জাঙ্ক ফুড সরিয়ে রেখে পুষ্টিকর খাবার খাওয়া খুব দরকার। এমন খাবার খান যা শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে। বিশেষজ্ঞরা মূলত পাঁচ ধরনের খাবারের কথা বলছেন।

ভিটামিন সি: ভিটামিন সি রয়েছে, এমন খাবার শরীরের পক্ষে খুবই উপকারী। প্রাথমিকভাবে নানা সংক্রমণ রোগে সাহায্য করে ভিটামিন সি। পাশাপাশি শরীরের কোষগুলিকেও সুরক্ষিত রাখে। তাই পাতিলেবু, কমলা লেবু, পেয়ারা, আমলকী ইত্যাদি নিয়মিত খান।

রঙিন শাক-সবজি: শাক-সবজি খেলে তা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তাই সব ধরনের শাক-সবজি খাওয়ার অভ্যেস করুন। যে সব ফল বা সবজিতে বিটা ক্যারোটিন, ক্লোরোফিল থাকে, সেসব খান। ব্রকলি, বেরি, লাল বাধাকপি জাতীয় সবজি খান।

কাঁচা হলুদ: কাঁচা হলুদ খাওয়া শরীরের জন্য কতটা উপকারী? এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পায়। শরীর অনেক বেশি সচল থাকে। আর্থারাইটিস রোধেও কার্যকরী কাঁচা হলুদ। যাদের ঠান্ডা লাগার ধাঁচ আছে, দুধের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে খেলে তারা উপকৃত হবেন।

আদা: ঠান্ডা লাগলে বাড়ির অভিভাবকরা নিশ্চয়ই অনেক সময় আদা মুখে রাখার পরামর্শ দেন। দীর্ঘস্থায়ী ব্যথা, গলা ধরা, জ্বালানি কমাতে সাহায্য করে আদা। এতে দেহের অতিরিক্ত কোলেস্টেরলও কমে।

প্রোবায়োটিক: যে সমস্ত খাবারে প্রিরায়োটিক বা প্রোবায়োটিক উপাদান রয়েছে, তা খেলে উপকৃত হবেন। দই, সয়াবিন জাতীয় খাবার, ফাইবার-যুক্ত খাবার রাখুন খাদ্যতালিকায়।

শুধু সঠিক খাবার খেলেই হবে না, নিজেকে চিন্তামুক্ত রাখাটাও অত্যন্ত জরুরি। দুশ্চিন্তা মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দিতে পারে। তাই সঠিক সময় ঘুমানো, পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম এবং দুশ্চিন্তা মুক্ত থাকাও জরুরি। তবেই নিজেকে সুস্থ রাখতে পারবেন।

স্বাআলো/এসএ