ইউএনও’র ওপর হামলার বিষয়ে রিমান্ডে যা বললো রবিউল

দিনাজপুর : ঘোড়াঘাটের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার বর্ণনা দিয়েছে আসামি রবিউল। রিমান্ডে সে জানিয়েছে, চাকরি হারানোর ক্ষোভ থেকে তার একক পরিকল্পনায় এ হামলা চালানো হয়।

ওই হামলার ঘটনায় হওয়া মামলার আসামি হিসেবে গ্রেফতারের পর রিমান্ডে পুলিশের তদন্ত কর্মকর্তাদের রবিউল বলেছে, ইউএনওর টাকা চুরির পর ফেরত দেয়ার সময় তাকে কথা দেয়া হয়েছিল, চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হবে না। কিন্তু তারপরও বরখাস্ত করা হয়েছে। একদিকে চাকরি হারানোর যন্ত্রণা, অন্যদিকে আর্থিক সংকট মিলিয়ে ইউএনওর ওপর ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। সেই ক্ষোভ থেকেই হামলার পরিকল্পনা করে রবিউল।

মঙ্গলবার দুপুরে মামলার তদন্তকারী পুলিশের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা রবিউলের বরাত দিয়ে এসব তথ্য জানিয়েছেন। পুলিশের ওই কর্মকর্তা জানান, জিজ্ঞাসাবাদে রবিউল সেই রাতের ঘটনার বর্ণনাসহ হামলার কারণ জানিয়েছে। সেই অনুযায়ী সব আলামত জব্দ করা হয়েছে। রিমান্ডে নেয়া সময়ের মধ্যে মামলার সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে। পুনরায় তাকে আর রিমান্ডের দরকার হবে না।

ইউএনও ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতারকৃত তারই অফিসের পরিচ্ছন্নতাকর্মী রবিউল ইসলাম পুলিশের রিমান্ডে আছে। আগামী বৃহস্পতিবার তার ছয় দিনের রিমান্ড শেষ হবে।

স্বাআলো/কে