লঞ্চ থেকে নারীর লাশ উদ্ধার

বরিশাল :  পারাবত-১১ লঞ্চের তৃতীয় তলার ৩৯১ নম্বর কেবিন থেকে উদ্ধার হওয়া নিহত নারীর পরিচয় শনাক্ত হয়েছে। ৩৫ ঘণ্টা পর পরিচয় শনাক্ত শেষে নিহতের স্বজনদের বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে মরদেহ।

মঙ্গলবার  সন্ধ্যায় নিহতের ভাই মোক্তার হোসেনের কাছে মরদেহটি হস্তান্তর করা হয়।

বরিশাল সদর নৌ থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, নিহত নারীর নাম জান্নাতুল ফেরদৌস লাভলী (২৯)। তার স্বামী ওলিউর রহমানের বাড়ি ফরিপুরের ভাঙ্গায়। তবে নিহত লাভলী রাজধানীর মিরপুর পল্লবী এলাকায় থাকতেন। তার দুই ছেলে আছে।

তিনি জানান, পল্লবীতে নিহতের বাবা আব্দুর লতিফ মিয়া, ভাই মোক্তারসহ স্বজনরা থাকেন। আর নিহতের স্বামী নিজ এলাকায় ইলেকট্রিকের কাজ করেন। তিনি প্রায়ই ঢাকায় যাওয়া-আসা করতেন।

ওসি আরও জানান, যে নাম ও মোবাইল নম্বর দিয়ে লঞ্চের কেবিন নেয়া হয়েছে, তা সঠিক নয় বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে সবকিছু আরও কঠোরভাবে পর্যবেক্ষণ করার পাশাপাশি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়া ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরায় দেখতে পাওয়া ব্যক্তিকে খোঁজা হচ্ছে। তাকে গ্রেফতারের অভিযান চলছে।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর সকালে নৌ পুলিশ বরিশাল নদী বন্দরে পারাবত-১১ লঞ্চের তৃতীয় তলার ৩৯১ নম্বর কেবিন থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ উদ্ধারের সময় ঘটনাস্থলে  সিআইডি পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট কাজ করে।

স্বাআলো/কে