ঝিকরগাছায় গ্রামবাসীর স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তা সংস্কার

10

যশোরের ঝিকরগাছার পানিসারা ইউনিয়নের কুলিয়া গ্রামবাসী নিজেদের অর্থে স্বেচ্ছাশ্রমে দুই কিলোমিটার রাস্তা সংস্কার করছেন। এতে ব্যয় হচ্ছে দুই লাখ টাকা। গত বছরও গ্রামবাসী চার লাখ টাকা ব্যয় করে ৪ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কার করেছিলেন। গত এক সপ্তাহ ধরে গ্রামের যুবকরা রাস্তাটির সংস্কার কাজ করছেন।

সরেজমিনে জানা গেছে, কুলিয়া গ্রামে একটি দাখিল মাদরাসা, একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একাধিক জামে মসজিদ রয়েছে। অথচ বর্ষাকাল আসলেই গ্রামে প্রবেশের রাস্তাগুলো চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। হাঁটুকাদা মাড়িয়ে গ্রামবাসীকে যেতে হয়। বিশেষ করে মাদরাসাটিতে যাওয়ার রাস্তা দুটি একেবারেই চলাচলের অনুপযোগী। এই পরিস্থিতিতে গ্রামবাসী নিজেদের অর্থে স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তা সংস্কার শুরু করছেন।

এই কাজের মূল উদ্যোক্তা গ্রামের বাসিন্দা সায়েদ আলী জানান, মাদরাসা হতে কানাইরালী দেড় কিলোমিটার রাস্তায় কোন রকম চলাচল করা যায় না। তাই বাধ্য হয়ে সংস্কার করতে হচ্ছে।

সংস্কারের কাজে থাকা সোহেল হোসেন রানা, সবুজ হোসেন, আব্দুল জলিল ও পল্লী চিকিৎসক জবেদ আলী জানান, গ্রামবাসীসহ কুলিয়া সিদ্দিকীয় দাখিল মাদরাসা ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কথা ভেবে নিজেদের অর্থে রাস্তায় মাটি সমান করে ইট খোয়া দিয়ে চলাচলের উপযোগী করা হচ্ছে।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য আনারুল ইসলাম জানান, দীর্ঘদিন ধরে সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে ঘুরেও কাজ না হওয়ায় নিজেদের অর্থে স্বেচ্ছশ্রমে রাস্তা সংস্কার করা হচ্ছে। তবে, ইউএসএআইডির অর্থায়নে পানিসারা ফুল গ্রেডিং সেন্টার থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এক কিলোমিটার পাকা হয়েছে। এ প্রকল্পের আওতাই দ্বিতীয় বারে আরো এক কিলোমিটার রাস্তা পাকা হবে বলে তিনি জানান।

স্বাআলো/এসএ