ঝিকরগাছায় সাবেক ইউপি সদস্যের অসামাজিক কাজ দেখে ফেলায় দু’জনকে মারপিট

5

যশোরের ঝিকরগাছায় ইজানুর রহমান ইজান (৪৫) নামে সাবেক ইউপি সদস্যের অসামাজিক কার্যকলাপ দেখা ফেলা সেই দুইজনকে মারপিঠ করা হয়েছে। হবিবুর রহমান ও মিন্টু হোসেন নামের ওই দুইজনকে সাবেক ইউপি সদস্য ইজান ও তার বড় ভাই ফয়জুর রহমান দুই দফা মারপিঠ করে এলাকা ছাড়ার হুমকি দিয়েছেন। এ ঘটনায় রবিবার ঝিকরগাছা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি হয়েছে। যার নং ৮৩৯।

গত বৃৃৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রতিবেশী এক ভ্যানচালকের স্ত্রীর সাথে বাঁশ বাগানের ভেতর আপত্তিকর অবস্থায় স্থানীয়দের হাতে ধরা খায় ইজানুর রহমান ইজান। এসময় তিনি উত্তম মাধ্যমের শিকার হন। ইজান উপজেলার শংকরপুর ইউনিয়নের নায়ড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য ও কথিত আওয়ামী লীগ নেতা এবং তার ভাই ফয়জুর রহমান ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক।

সাধারণ ডায়েরিতে উল্লেখ করা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে ইজানুর রহমান ইজান বাড়ির পাশে বাঁশ বাগানে দেড়িয়া গোরস্থানের কাছে প্রতিবেশী এক ভ্যানচালকের স্ত্রী দুই সন্তানের জননীর সাথে অসামাজিক কাজ করছিল। এসময় স্থানীয়রা টের পেলে তাকে উত্তম মাধ্যম দেয়। এ ঘটনা নিউজ পোর্টাল স্বাধীন আলোসহ কয়েকটি পত্র পত্রিকায় প্রকাশ হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শনিবার রাত সাড়ে ৯ টার সময় নায়ড়া রাইস মিলের সামনে ইজান ও তার ভাই ফয়জুর রহমান গ্রামের হবিবুর রহমান এবং মিন্টু রহমানকে মারপিঠ করে। এসময় তারা হবিবুর ও মিন্টুকে হত্যারও হুমকি দেয়। এ ঘটনায় হবিবুর রহমান রবিবার ঝিকরগাছা থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

স্থানীয়দের মতে সাবেক এই ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে করোনাকালীন সময়ে ত্রাণ আত্মসাতেরও অভিযোগ রয়েছে। অভিযোগ রয়েছে স্থানীয় মাদক কারবারীদের মদদাতা হিসেবেও।

ঝিকরগাছা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মেজবা উদ্দীন জানান, মারপিঠ ও হুমকির ঘটনায় হবিবুর রহমান একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

স্বাআলো/এসএ