‘সুস্থ হওয়া পর্যন্ত খালেদা জিয়ার সব মামলার কার্যক্রম স্থগিত রাখা উচিত’

4

ঢাকা : অসুস্থ বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থ হওয়া পর্যন্ত অন্যান্য মামলার কার্যক্রমও স্থগিত থাকা উচিত বলে মনে করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। তারা বলেন, সরকার নির্বাহী আদেশে তাকে চিকিৎসার জন্য মুক্তি দিয়েছেন। স্বাভাবিক কারণে আইনগতভাবে অন্যান্য মামলার কার্যক্রম স্থগিত থাকবে। আদালতে অ্যাপিয়ার করার জন্য তাকে শারীরিকভাবে সুস্থ হতে হবে। কোনো ট্রায়াল কোর্টে উপস্থিত থেকে মামলা মোকাবেলা করতে হলে তাকে সুস্থ হতে হবে। আর সুস্থ হলে তিনি আদালতে অ্যাপিয়ার করবেন।

এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, সরকার নির্বাহী আদেশে তাকে চিকিৎসার জন্য মুক্তি দিয়েছে। স্বাভাবিক কারণে আইনগতভাবে সব মামলার কার্যক্রম স্থগিত থাকছে। তিনি বলেন, বেশ কিছু মামলার ক্ষেত্রেও হাইকোর্ট বিভাগ মামলার কার্যক্রমের ওপর যে স্থগিতাদেশ দিয়েছেন তা আপিল বিভাগে বহাল করা হচ্ছে। সকল মামলা একই ধরনের আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ হওয়া উচিত।

এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, সরকার চিকিৎসার জন্য বেগম খালেদা জিয়াকে নির্বাহী আদেশে মুক্তি দিয়েছে। আদালতে অ্যাপিয়ার করার জন্য তাকে শারীরিকভাবে সুস্থ হতে হবে। কোনো ট্রায়াল কোর্টে মামলা মোকাবেলা করতে হলে তাকে সুস্থ হতে হবে। এটা আমাদের আইন। আর সুস্থ হলে তিনি আদালতে অ্যাপিয়ার করবেন।

এ বিষয়ে বিএনপির আইন সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে  মামলা ৩৬টি। এর মধ্যে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় সাজা স্থগিত করে সরকার তাকে মুক্তি দিয়েছে। এ ছাড়া চলমান অন্য সকল মামলায় তিনি জামিনে আছেন।

আর রাষ্ট্রদ্রোহ ও নাশকতার অভিযোগে করা ১১টি মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে হাইকোর্টে দেয়া আদেশ বহাল রাখেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। গত ২০ সেপ্টেম্বর, ১৭ আগস্ট ও ২৩ আগস্ট আপিল বিভাগ এসব মামলায় স্থগিতাদেশ বহাল রাখেন।

স্বাআলো/কে