সব ধরনের ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন উমর গুল

15

পাকিস্তান জাতীয় দলের এক সময়ের নিয়মিত মুখ পেসার উমর গুল। তাকে চেনেনা এমন ক্রিকেট প্রেমী পাওয়াটা দুস্কর। পাকিস্তানি এই পেসার সব ধরণের ক্রিকেট থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিতে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন। শুক্রবার ঘরোয়া ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপে সাউদার্ন পাঞ্জাবের কাছে হেরে তার দল বেলুচিস্তানের বিদায়ের পর এ ঘোষণা দেন তিনি।

৩৬ বছর বয়সী উমর গুল বলেন, “দুই দশকে আমার ক্লাব, শহর, রাজ্যি এবং দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করতে পারাটা আমার জন্য সম্মানের ছিল।”

“ক্রিকেট খেলাটাকে আমি খুব উপভোগ করেছি, এটা আমাকে কঠোর পরিশ্রমের মূল্য, সম্মান, দায়বদ্ধতা এবং দৃঢ়তা শিখিয়েছে। এই অভিযানের সময়টায় আমি এমন সব মানুষের দেখা পেয়েছি, যারা আমাকে সহযোগিতা করেছে এবং সমর্থন দিয়েছে। আমাকে সমর্থন দেয়ায় সেই সব মানুষজন, আমার সতীর্থ এবং সহকর্মীদের আমি ধন্যবাদ দিতে চাই।”

পাকিস্তানের বেশ কিছু রেকর্ড আছে তার দখলে। বেশি খ্যাতি ছড়িয়েছেন টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। পাকিস্তানের পক্ষে সবচেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি উইকেট শিকার দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে আছেন তিনি। তার শীর্ষে যিনি কেবল শহীদ আফ্রিদি।

বয়সভিত্তিক ক্রিকেট ২০০২ সালে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করা উমর গুল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখেন ২০০৩ সালে। দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত ৫০ ওভারের বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ভরাডুবির জের ধরে ওয়াসিম আকরাম, ওয়াকার ইউনিসের মতো তারকা পেসাররা অবসরে যাওয়ায় ওই সময়টায় সংকটের মধ্যদিয়ে যাচ্ছিলো দেশটি।

২০০৩ সালের এপ্রিলে শারজায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওডিআই খেলার মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শুরু হয় উমর গুলের পথ চলা। নিজের সময়ে হয়ে ওঠেন বিশ্বের অন্যতম সেরা পেসার।

২০০৯ সালে পাকিস্তানকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতাতে বড় ভূমিকা রাখা গুল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলেছেন ৪৭টি টেস্ট, ১৩০টি ওয়ানডে এবং ৬০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সব মিলিয়ে তার উইকেট ৪২৭টি।

স্বাআলো/এস