অপরাজেয় জন্মদাত্রী

তোমার চরণে কপাল রেখে শুরু করেছি…
লিখতে বসেছি কবিতা,
সারাবিশ্বে তুমি এক মহতী নারী
ভক্তকুল দেবতা;

তোমার নিদাঘ আদরে বড় হয়েছে
কোটি কোটি তনয়,
সত্যি তুমি বিদগ্ধ জন্মদাত্রী
নিটল ভালো তোমার গর্ভে পেয়েছি ঠাঁই!

ওগো প্রসূতি সব ক্লেশ চাপা দিয়ে মাটিকামড়ে
পড়ে থাকার ক্ষমতা তোমার অসাধারণ,
জগৎ স্রষ্টার কাছে হাজারও প্রণাম
পেয়েছি জননী এমন!

তোমার কৃতকৃত্যর ফল মহী জুড়ে
রয়েছে গর্ভধারিণী সীমাহীন,
তুমি ধরাতলের অতন্দ্র মহীয়সী
অবনী জুড়ে রয়েছো সমীচীন;

ওগো মাতৃকা তুমি নও পরাহত
উর্ধীকে করেছো আমোচন,
তোমার সাহসের প্রকর্ষ দেখে
জগৎপিতা দিয়েছে প্রথম স্থান!

ওগো মাতা তুমি নিশুতির অন্ধকারে
নিরবধি সহ্য করেছো আত্নজের রোনাজারি,
হওনি কখনো পেরেশান তুমি
মেদিনীর কাছে এক চর্চিত নারী;

ওগো মাতৃ তুমি বলো অপকৃত্য করনা
ভালো থাকিস চিরদিন,
দাও আদ্যন্ত প্রতীতি
আরও কত তালকিন!

মাগো তোমার প্রকীর্তি
মর্ত্যে রয়েছে কত ভার
তোমার মত জননী পেয়ে
সত্যিই বিশ্ব তালেবর।

সিরাজসুমন, সরকারি এম এম কলেজ, যশোর। এমএ (মাস্টার্স) ১৮তম ব্যাচ। বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিভাগ।

স্বাআলো/এসএ