আজ যশোর সদর উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচন

যশোর: আজ যশোর সদর উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচন। গতকালই উপজেলার ১৭৫টি কেন্দ্রে ভোট উপকরণ পৌছে গেছে। আর আজ সকালে দেয়া হবে ব্যলটপেপার। নির্বাচনে নৌকার নুরজাহান ইসলাম নীরা ও ধানের শীর্ষের নূর-উন-নবী প্রতিদ্বদ্বিতা করছেন। সাড়ে পাঁচ লক্ষাধিক ভোটার আজ তাদের জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করবেন। সকাল ৯ থেকে বিকাল ৫ পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলবে ভিাটগ্রহণ।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় পাঁচ লাখ ৬০ হাজার ৫২৪ জন ভোটার রয়েছেন। যারা ১৭৫টি কেন্দ্রে ভোট দেবেন। ভোট পরিচালনার জন্য ১৭৫ জন প্রিজাইটিং অফিসার ও এক হাজার ১৩ জন পোলিং অফিসার নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

নির্বাচনে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নিশ্চিত করতে এবার এক হাজার ৫০০ পুলিশ সদস্য ও ছয় প্লাটুন বিজিবি নিয়োগ করা হয়েছে। দুইজন জুডিসিয়াল ও ১৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া ১৮টি মোবাইল টিম ও স্ট্রাইকিং ফোর্সে ছয়টি টিম নির্বাচনের মাঠে সার্বক্ষণিক কাজ করবে।

এদিকে, রোববার শেষ হয়েছে এই নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা। তাই সোমবার কোন প্রার্থীর পক্ষে প্রকাশ্যে গণসংযোগ করা হয়নি। তবে আজকের নির্বাচনে জয়ী হতে শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি সেরে নিয়েছেন তারা।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর যশোর সদর উপজেলাসহ দেশের ৮টি উপজেলার চেয়ারম্যান ও দুইটি উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। যশোর সদর উপজেলা চেয়ারম্যানের শূন্যপদে নির্বাচনে চারজন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। যাদের মধ্যে যশোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহিত কুমার নাথ ও বিএনপিনেতা সিরাজুল ইসলামের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়।

উল্লেখ্য, যশোর-৬ আসনের উপ-নির্বাচনে সংসদ সদস্য পদে নির্বাচনের আগে শাহীন চাকলাদার সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করেন। এরপর নির্বাচন কমিশন যশোর সদর উপজেলার চেয়ারম্যান পদটি শুন্য ঘোষণা করে।

স্বাআলো/আরবিএ