সাকিবের ভাইরাল হওয়া সেই ছবির পিছনের গল্প

ঠিক এক মাস আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা সাকিব আল হাসানের একটি ছবি বেশ সাড়া ফেলে দেয়। ২৫ সেপ্টেম্বর নিজের ভেরিফায়েড ফেইসবুক পেজ, ইনস্টাগ্রাম, টুইটারে পোস্ট করা ছবিতে ‘বনেদি পাইকারি বিক্রেতা’র বেশে হাজির হয়েছিলেন সাকিব।

এরপর থেকেই সবার কৌতূহল ছবিটির পেছনের গল্পকে ঘিরে। যা সামনে এলো এবার।

সাকিব ছবিটি পোস্ট করার পর থেকেই ধারণা করা হচ্ছিল, বিজ্ঞাপনের কোনো দৃশ্যেই হয়তো এমন বেশে হাজির হতে যাচ্ছেন তিনি। প্রকৃত ঘটনা আসলে সেটাই।

বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার ‘বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন’ এর জনসচেতনতামূলক এক বিজ্ঞাপনে পাইকারি বিক্রেতার বেশে হাজির হয়েছেন। এরই মধ্যে বিজ্ঞাপনটি ফেইসবুকের বিভিন্ন পেজ ও ইউটিউবের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

বিনিয়োগ বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধিই মূলত সাকিবের এই নতুন বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্য। বিজ্ঞাপনটিতে দুই ভূমিকায় হাজির হয়েছেন সাকিব।

পাইকারি বিক্রেতার চরিত্রে সাকিবকে দেখা যায়, অন্যের কথায় নিশ্চিত লাভের আশায় বিনিয়োগ করতে। কোনো ঝুঁকি নেই এমন কথার ভিত্তিতে দোকান কর্মচারীকে সাকিব তাড়া দেন, মাল দ্রুত বেচতে। লক্ষ্য- শেয়ার কেনা। ফোনে অন্যের কাছ থেকে ২০ লাখ টাকাও চান সাকিব। কিন্তু এক মাস পর শেয়ারে লোকসানের খবর পান ‘পাইকারি বিক্রেতা’ সাকিব।

এরপর বিজ্ঞাপনে আপন ভূমিকায় হাজির হন দেশের ক্রিকেটের সাবেক অধিনায়ক সাকিব। বার্তা দেন- ‘সব বিনিয়োগেই ঝুঁকি আছে। ঝুঁকি বিবেচনা করে বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত নিজে নিন। কারো কথায় বা গুজবের ভিত্তিতে নয়।’

বিনিয়োগকারীর সচেতনতা বাড়াতে ‘বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন’ বিনিয়োগ শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। সেটিও তুলে ধরা হয়েছে বিজ্ঞাপনে।

এমন এক সময় বিজ্ঞাপনটি প্রকাশ্যে এলো, যখন সাকিব নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তির প্রহর গুনছেন। ২৮ অক্টোবরই শেষ হচ্ছে সাকিবের ওপর আইসিসির দেয়া এক বছরের নিষেধাজ্ঞা। ২৯ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার থেকেই মুক্ত তিনি।

স্বাআলো/এসএ