শিয়াল মারার বৈদ্যুতিক ফাঁদে জড়িয়ে গৃহবধূর মৃত্যু

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে পোল্ট্রি মুরগি ফার্মের সাথে শিয়াল মারা বা আটকানোর জন্য বৈদ্যুতিক তার দিয়ে ফাঁদের সাথে জড়িয়ে এক গৃহবধূর মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এক শিশুসহ এক বৃদ্ধা আহত হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ময়না ইউনিয়নের পাঁচ ময়না গ্রামের সাবেক পুলিশ সদস্য মৃত সালাম মোল্লার ছেলে তুহিন মোল্যা বাড়ির পাশে মাঠের মধ্যে একটি পোল্ট্রি মুরগির খামার রয়েছে। ওই মাঠে আরো কয়েকটি খামার আছে। খামারে রাতে শেয়াল ও বনবিড়ালের আক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে ওই খামারের চারপাশে বিদ্যুতের ফাঁদ পাতা হয়। কিন্তু ভুলক্রমে দিনের বেলায়ও ফাঁদে যুক্ত বিদ্যুতের লাইন চালু রয়েছে।

বুধবার দুপুরে তুহিন মোল্যার চাচাতো ভাই হাবিব মোল্যার মেয়ে হাবিবা (৪) ওই বিদ্যুতের ফাঁদে জড়িয়ে গেলে তার দাদি জাহেদা বেগম (৬৫) উদ্ধার করতে গিয়ে জাহেদা বেগমও বিদ্যুতায়িত হন। এ সময় ওই দুজনকে বাঁচাতে গিয়ে তুহিন মোল্লার চাচাতো ভাই অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য নুরুল ইসলাম তারা মিয়ার স্ত্রী মনজু আরা (৫০) বিদ্যুতায়িত হন। পরিবারের লোকজন আহত তিনজনকে উদ্ধার করে বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মনজু আরাকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত দুজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বোয়ালমারী থানার ওসি আমিনুর রহমান জানান, লাশ থানায় আনা হয়েছে। মৃত নারীর ব্যাপারে পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ পাইনি। তদন্তপূর্বক পরবর্তী প্রক্রিয়া চলছে।

স্বাআলো/এসএ