জাতীয় ফুটবল দলের দুই সদস্য করোনায় আক্রান্ত

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচ খেলতে কাতারে পৌঁছানোর পর বাংলাদেশ ও করোনা পরীক্ষার ফল পজেটিভ এসেছে। তবে স্বস্তির বিষয় হলো দুজনের কেউই খেলোয়াড় নন।

আক্রান্তদের মধ্যে একজন টিম ম্যানেজার আমের খান এবং অন্যজন দলের ফিজিও ফুয়াদ হাসান।

আজ শুক্রবার এমনটাই জানিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। তবে দলের বাকি সদস্যরা সুস্থ আছেন বলে জানা গেছে। দলের খেলোয়াড়রা এখন টিম হোটেলে যার যার রুমে অবস্থান করছেন। তাদের বাইরে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে।

এর আগে করোনা পজেটিভ হওয়ায় দলের সঙ্গে যেতে পারেননি কোচ জেমি ডে।

কাতারের বিপক্ষে তাদের ঘরের মাটিতে বিশ্বকাপ বাছাই ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের প্রিলিমিনারি রাউন্ডের দ্বিতীয় ধাপের ম্যাচ খেলতে বৃহস্পতিবার দোহায় পৌঁছেছে বাংলাদেশ দল। বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পরই দলের খেলোয়াড় ও স্টাফদের করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা নেয়া হয়। সেই পরীক্ষার ফলাফলেই দুজনের পজেটিভ রেজাল্ট এলো।

কাতার পৌঁছে তিনদিনের কোয়ারেন্টিনে আছে বাংলাদেশ দল। তবে হোটেলে জিমনেশিয়াম ও সুইমিং পুল ব্যবহারের অনুমতি ছিল জামাল ভূঁইয়াদের। কিন্তু দলের দুই সদস্য করোনা পজেটিভ হওয়ায় আজকের জিম সেশন বাদ দেয়া হয়েছে। খেলোয়াড়দের খাবারো যার যার ঘরে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।

আগামী ৪ ডিসেম্বর দোহায় কাতারের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ দল। এর আগে স্থানীয় দুই ক্লাবের বিপক্ষে ২৫ ও ২৮ নভেম্বর দুটি প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ খেলবে জেমি ডের শিষ্যরা। এর আগে শনিবার আমের ও ফুয়াদের আবারো করোনা পরীক্ষা করোনা হবে।

স্বাআলো/এস