অভিজ্ঞতার কমতি থাকায় বরিশাল দল নিয়ে অসন্তুষ্ট অধিনায়ক তামিম

গত ১২ নভেম্বর হওয়া প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে আসন্ন বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের জন্য দল সাজিয়েছে অংশগ্রহণকারী দলগুলো। যেখানে ১ কোটি ১৩ লাখ টাকা খরচ করে নিজেদের ১৬ খেলোয়াড়কে নিয়েছে ফরচুন বরিশাল। সবচেয়ে বেশি ১৫ লাখ টাকার ‘এ’ গ্রেড থেকে তারা নিয়েছে তামিম ইকবালকে, অধিনায়কত্বও দেয়া হয়েছে তাকে।

এছাড়া দলে রয়েছেন তাসকিন আহমেদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মেহেদি হাসান মিরাজ, ইরফান শুক্কুর, আমিনুল ইসলাম বিপ্লবদের মতো তরুণ তারকারা। এর বাইরে তারুণ্যের প্রতিনিধি হিসেবে আছেন তৌহিদ হৃদয়, সাইফ হাসান, সুমন খান, মাহিদুল অঙ্কন, তানভীর ইসলাম, পারভেজ ইমনরা। কিন্তু সে অর্থে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার নেই দলটিতে।

তামিম ছাড়া ঘরোয়া বা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দীর্ঘদিন খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে শুধুমাত্র কামরুম ইসলাম রাব্বি ও সোহরাওয়ার্দি শুভ। দলে তারুণ্যের ঝলকানি থাকলেও অভিজ্ঞতার কমতি থাকায় পুরো স্কোয়াড নিয়ে খুব একটা সন্তুষ্ট নন অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

যা তিনি সোজাসাপটাই বলেছেন দলের প্রথম অনুশীলনে। আগামী মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) টুর্নামেন্ট শুরুর আগে তিনদিন অনুশীলনের সুযোগ পাচ্ছে দলগুলো। যার প্রথম দিন ছিল আজ শনিবার। শুক্রবার করা করোনা পরীক্ষায় সব খেলোয়াড় নেগেটিভ হওয়ায় শনিবার সকাল ৯টা থেকেই অনুশীলন শুরু করে দিয়েছে বরিশাল।

অনুশীলনের ফাঁকে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে প্লেয়ার্স ড্রাফটে নিজেদের ভুলের কথা বলেছেন তামিম। তার ভাষ্য, ‘কোনো সন্দেহ নেই যে, আমরা ড্রাফটে কিছু ভুল করেছি। ড্রাফটে কিছু ভুল করেছি দেখেই কথা উঠছে।’

তবে এতেই হাল ছেড়ে দিচ্ছেন না বরিশাল অধিনায়ক। তিনি আশায় আছেন কারো কাছ থেকে প্রত্যাশাতীত পারফরম্যান্স পাওয়া, ‘একইসঙ্গে এটাও বুঝতে হবে যে, ক্রিকেট অনিশ্চয়তার খেলা। এখন হয়তো আমার দলে এমন কিছু প্লেয়ার আছে, যাদের আমরা কেউ বড় করে দেখছি না। কিন্তু তাদের সবারই দারুণ টুর্নামেন্ট কাটতে পারে। যেকোনো কিছু হতে পারে। আমি তেমন কিছুর আশায়ই থাকব।’

তামিমের ভাষ্য, ‘আমার যে স্কোয়ডটা আছে, যদি সফল হতে হয়, আউট অব দ্য বক্স ক্রিকেট খেলতে হবে। সবসময় যেমন পরিকল্পনা করে খেলি, সেভাবে জেতাটা কঠিন হবে। যদি আমরা একটু আউট অব দ্য বক্স চিন্তা করতে পারি, অন্য দলকে সারপ্রাইজ দিতে পারি। তাহলে অবশ্যই সম্ভব হবে। আমি আশা করি যে দুই-তিনজনকে নিয়ে আশা করছি না তারা যদি ভালো খেলতে পারে। অনেক কিছুই হতে পারে।’

অধিনায়ক হিসেবে নিজের পারফরম্যানসও অনেক বড় বিষয় হবে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘আমার নিজের পারফরর্ম্যান্স অনেক গুরুত্বপূর্ণ। অধিনায়কত্বের ব্যাপারটা বাদ দেন, আমি যদি ব্যাটসম্যান হিসেবে রান করতে পারি তাদের অবশ্যই সেটা অনুপ্রেরণা দেবে। আমার টুর্নামেন্টে আলাদা আলাদা ভূমিকা পালন করতে হবে।’

ফরচুন বরিশাল স্কোয়াড:
তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), তাসকিন আহমেদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, ইরফান শুক্কুর, মেহেদি মিরাজ, আবু জায়েদ রাহি, তৌহিদ হৃদয়, তানভীর ইসলাম, সুমন খান, সাইফ হাসান, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন, পারভেজ হোসেন ইমন, কামরুল ইসলাম রাব্বি, আবু সায়েম এবং সোহরাওয়ার্দি শুভ।

স্বাআলো/এস