স্মৃতিময় শাহিন

হে অভিরূপ কনিষ্ঠ অনুজ শাহিন…
তুমি নেই অদ্য এ ধরাতে
ছিলে মোদের সমীপে নেহাত,
নিশ্চল রোদন, ক্ষণে ক্ষণে নিস্তব্ধ শুধু হাহাকার
বড়ই রোনাজারি…
যখন শুনেছি তুমি আজ গত।

মানতে বড় কষ্ট হয় তুমি নেই এই ধরনীতে
সকলের সমীপ থেকে গেছো হারিয়ে,
অশ্রু স্বিন্ন মোদের দু’নয়নে শুধুই বারিধারা
চলে গেলে তুমি কাঁদিয়ে।

তুমি নাকি বড্ড ভয় পেতে গভীর তিমির
আর নির্জনে একা থাকতে,
আজ তুমি গভীর নিষুতিতে শায়িত একাকিত্ব আগারে
নেই তুমি এই আমাদের সাথে।

পলক নেত্রে যখন চেয়ে থাকি তোমার
ঐ সজ্জিত ঘরে…
পড়ে আছে সেই শখের সাইকেল, টি শার্ট
আর পড়ার টেবিল
শুধু আজ তুমি নেই এই ধরাতলে।

তোমার কণ্ঠের সেই সুমধুর আওয়াজ দিয়ে
আর তুমি ডাকবে না ভাই বলে,
তুমি আজ নেই এই বসুমতীতে
বড় নিঃসঙ্গ মোরা, সব স্মৃতি মুছে দিলে।

বলতে কথা সকলের সাথে হেসে ভালবেসে,
আজ তুমি চলে গেলে না ফেরার দেশে।

তুমি থাকবে মোদের হৃদ মাঝারে অনন্তকাল…
শুধু ভেবে যাবো তুমি নেই হত,
তোমার প্রতি ভালবাসা রবে চির শত শত।

আর কোন আবদার-অধিকার নিয়ে
আসবেনা এই বসুন্ধরায়
সব চাওয়া-পাওয়া করে গেলে ইতি,
শুধু মনে রবে একটি কথা
শাহিন তুমি আজ শুধুই স্মৃতি।

উৎসর্গঃ দীর্ঘ কয়েকটি বছর একই ছাদের নিচে যার সাথে থাকা, সেই স্নেহের কনিষ্ঠ অনুজ শাহিন। যে গত ১৫.১১.২০২০ তারিখে (রবিবার) চলে গেছে না ফেরার দেশে।

 

লেখক: সিরাজসুমন, সরকারি এম এম কলেজ, যশোর। এমএ (মাস্টার্স) ১৮তম ব্যাচ। বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিভাগ।