কাস্টমসের নারী কর্মচারীর ১৩ বছরের কারাদণ্ড, কোটি টাকা জরিমানা

খুলনায় আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের দায়ে কাস্টমসের এক নারী কর্মচারীকে ১৩ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে খুলনার বিভাগীয় বিশেষ আদালতের বিচারক জিয়া হায়দার এ রায়ে একই সাথে আসামিকে এক কোটি পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করেন বলে জানিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী।

সাজাপ্রাপ্ত রাফেজা বেগম ওরফে নাজমা হায়দার রাফিজা চট্টগ্রাম কাস্টমসে তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী ছিলেন। তার বাড়ি খুলনা নগরীর সোনাডাঙ্গা এলাকায়। তার স্বামী এমএম জাহাঙ্গীর আলম কাস্টমসের কর্মচারী।

দুদকের আইনজীবী খন্দকার মজিবর রহমান জানান, ২০১৫ সালের ২৯ এপ্রিল সোনাডাঙ্গা থানায় রাফেজার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে দুদকের কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত করেন দুদক কর্মকর্তা শামীম ইকবাল।

মজিবর বলেন, রাফেজা বেগম তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী ছিলেন। তদন্তে তার বিরুদ্ধে আয় বহির্ভূত বিপুল সম্পত্তি অর্জনের প্রমাণ পাওয়ায় জরিমানাসহ কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

রাফেজার স্বামী এমএম জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধেও দুদকে মামলা রয়েছে বলে জানান তিনি।

স্বাআলো/এসএ