হাইকোর্টে জামিন পেলেন ফ‌টো সাংবাদিক কাজল

শে‌রেবাংলা নগর থানায় সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শেখরের দা‌য়ের করা মামলায় হাইকোর্ট জামিন দিয়েছেন ফ‌টো সাংবা‌দিক শ‌ফিকুল ইসলাম কাজ‌লকে।

বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ মঙ্গলবার কাজলকে জামিনের এ আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার জ্যোর্তিময় বড়ুয়া।

জ্যোর্তিময় বড়ুয়া বলেন, এ মামলায় গত ২৪ আগস্ট তাঁর জামিন নামঞ্জুর করেন নিম্ন আদালত। এরপর ৮ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। ১৯ অক্টোবর শুনানি শেষে আদালত দুই সপ্তাহের রুল জারি করেন। এর পর আজ এ মামলায় তাঁকে জামিন দিয়েছেন আদালত।

রাজধানী ঢাকার শেরেবাংলা নগর থানায় কাজলসহ ৩২ জনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গত ৯ মার্চ মামলা করেন মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শেখর। এরপর ১০ ও ১১ মার্চ রাজধানী হাজারীবাগ ও কামরাঙ্গীরচর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আরো দুটি মামলা হয়। কিন্তু গত ১৮ মার্চ রাতে কাজলকে অপহরণ করা হয়েছে অভিযোগ এনে চকবাজার থানায় মামলা করেন তাঁর ছেলে মনোরম পলক।

৫৩ দিন নিখোঁজ থাকার পর গত ৩ মে কাজলকে বেনাপোল সীমান্ত থেকে উদ্ধার করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এরপর তাঁকে ফৌজদারি কার্যবিধির ৫৪ ধারা গ্রেফতার দেখিয়ে যশোরে মামলা করা হয়। ওই মামলায় গত ২০ মে যশোর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত কাজলকে অব্যাহতি দেন। কিন্তু সেদিন তাঁকে মুক্তি না দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়। ওই আদালতের আদেশে বলা হয়, তাঁকে (কাজল) ঢাকার সিএমএম আদালত থেকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। তাই তাঁকে মুক্তির নির্দেশ দেয়া যাচ্ছে না। সেই থেকে কাজল কারাবন্দি।

কাজলকে কেন জামিন দেয়া হবে না- তা জানতে চেয়ে গত ১৯ অক্টোবর রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

স্বাআলো/এসএ