মাকে নিয়ে কটুক্তি, বন্ধুর বুকে ছুরি বসালো বন্ধু

যশোরে মেহেদী হাসান সাগর হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তার বন্ধু আল আমিন ইসলাম নয়নকে আটক করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাতে শহরের বারান্দিপাড়ার খেজুরবাগান থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। আটক নয়নের স্বীকারোক্তিতে পরে হত্যাকাণ্ড ব্যবহৃত বারান্দিপাড়া বটতলা এলাকার একটি পরিত্যাক্ত খামারের গোবরের ডোবা থেকে একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়।

আজ বুধবার আটক নয়ন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুদ্দীন হোসানের আমলী আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) যশোরের পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন।

জানা যায়, নয়ন এবং সাগর পরস্পর ঘনিষ্ট বন্ধুত্ব ছিল। তারা সব সময় একসাথে চলাফেরা করত। গত ৭ ডিসেম্বর রাতে নিহত সাগরের বাবার দোকানের পাশে বিস্কুট খাওয়াকে কেন্দ্র করে আল আমিন এবং সাগরের কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে সাগর অভিযুক্ত আল আমিনের মাকে নিয়ে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজনের হস্তক্ষেপে বিষয়টি মিমাংসা হয়। তারা আবার পূর্বের ন্যায় শহরে বেড়াতে আসে। কিন্তু অভিযুক্ত আল আমিন তার মাকে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করার কারণে মনে মনে সাগরকে হত্যার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা অনুযায়ী আল আমিন একটি চাকু পকেটে করে নিয়ে আসে।
মঙ্গলবার রাতে আল আমিন সাগরকে শহরের ঘোপ জেলরোডের পাশে পায়ে হাটার রাস্তায় নিয়ে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে মৃত্যু নিশ্চিত করে।

স্বাআলো/আরবিএ