সাইফার্ট ও গাপটিলের ঝড়ে বিধস্ত পাকিস্তান, ১ রানের আক্ষেপ হাফিজের

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে রবিবার পাকিস্তানের পক্ষে যেন একজনই কেবল লড়াই করলেন! আগে ব্যাটিং করে মোহাম্মদ হাফিজের অপরাজিত ৯৯ রানে ভর করে ১৬৩ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। জবাবে টিম সাইফার্ট ও কেন উইলিয়ামসনের ঝড়ো অর্ধশতকে নিউজিল্যান্ড পেয়েছে ৯ উইকেটের জয়।

সিরিজে ফেরার ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত পাকিস্তানের। টিম সাউদির পেস তোপে শুরুটা ভালো করতে পারেনি সফরকারীরা। ওপেনার হায়দার আলি ১টি ছক্কা হাঁকিয়েই ৮ রানে আউট হন মিড অফে সহজ ক্যাচ দিয়ে। এক বল পরেই ফিরতি ক্যাচ নিয়ে আব্দুল্লাহ শফিককে প্যাভিলিয়নের পথ দেখান বোলার সাউদি। পাওয়ারপ্লেতেই ৩টি উইকেট হারায় পাকিস্তান, সবগুলোই সাউদি শিকার করেন।

সাজঘরে যাওয়া-আসার মাঝে ছিলেন পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা। তবে একজন ছিলেন ব্যতিক্রম, পাকিস্তান দলের সবচেয়ে প্রবীণ ক্রিকেটার মোহাম্মদ হাফিজ। সতীর্থদের অসহায় আত্মসমর্পণ দেখতে দেখতে একাই লড়াই করে যান তিনি। ৫৭ বল খেলে হাফিজ করেছেন অপরাজিত ৯৯ রান। শতকটা ছোঁয়া হলো না মাত্র ১ রানের জন্য। তার অপরাজিত ছিল ১০টি চার ও ৫টি ছক্কা। ৩৭ বলে অর্ধশতক পূর্ণ করেছিলেন হাফিজ।

আরো পড়ুন>>> পেলেকে টপকে মেসির নতুন রেকর্ড

২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে পাকিস্তান সংগ্রহ করে ১৬৩ রান। যার মধ্যে হাফিজের ৯৯ রান। নিউজিল্যান্ডের সাউদি ২১ রান দিয়ে তুলে নেন ৪টি উইকেট।

জবাবে সাইফার্ট ও মার্টিন গাপটিলের ব্যাটে উড়ন্ত সূচনা পায় নিউজিল্যান্ড। এই দুইজনেই নিউজিল্যান্ডকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন।

সাইফার্ট ও উইলিয়ামসন দুইজনেই অর্ধশতক করেন। সাইফার্ট অর্ধশতক পূর্ণ করেন ৩২ বলে ও উইলিয়ামসন ৩৭ বলে। ৬৩ বলে ৮টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৮৪ রানে অপরাজিত থাকেন সাইফার্ট। নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক অপরাজিত থাকেন ৪২ বলে ৫৭ রানে। উইলিয়ামসনের ইনিংসে ছিল ৮টি চার ও ১টি ছক্কা।

তাদের ব্যাটে চড়ে ৯ উইকেটের জয় নিশ্চিত করে নিউজিল্যান্ড। এই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজও ২-০ ব্যবধানে নিজেদের করে নিলো কিউইরা। সিরিজের শেষ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ২২ ডিসেম্বর।

স্বাআলো/এস

.