‘এই ধানের শীষ কেনা, আমরা বয়কট করেছি’

আগামী ২৮ ডিসেম্বর বরগুনার বেতাগী পৌরসভা নির্বাচন। এই নির্বাচনে ধানের শীর্ষের মনোনয়ন পেয়েছেন পৗর বিএনপির আহবায়ক হুমায়ুন কবীর মল্লিক। কিন্তু তার নিজ দলের নেতাকর্মীরা এটা এখনো মেনে নিতে পারছেন না।

তারা প্রকাশ্যে বলছেন, তিনি মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে মনোনয়ন কিনে নিয়ে এসেছেন। বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, কৃষকদল শ্রমিকদলসহ সব অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে বয়কট করেছি।

তাদের আরো অভিযোগ, তিনি গত নির্বাচনেও দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচন করেছিলেন। হেরে যাওয়ার পর গত পাঁচ বছর নেতাকর্মীদের সঙ্গে কোন ধরনের যোগাযোগ রাখেননি।

উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক হাফিজুর রহমান সোহাগ বলেন, উনি হইলেন নব্য বিএনপি। গত নির্বাচনে হঠাৎ করে উনি মনোনয়ন নিয়ে আসছেন। আমরা তাকে নিয়ে আপ্রাণ চেষ্টা করে সামান্য ব্যবধানে হেরেছিলাম। নির্বাচনের পর তিনি এলাকা ছেড়ে যে ঢাকায় গেছেন, আর এলাকার কোনো খোঁজ রাখেননি। তিনি মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে মনোনয়ন কিনে নিয়ে এসেছেন। আমরা যুবদল, ছাত্রদল, কৃষকদল শ্রমিকদল সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীসহ মূল বিএনপি আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে বয়কট করেছি।

আরো পড়ুন>>>২৫ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা

পৌর ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আল-আমিন মল্লিক বলেন, মনোনয়ন নিয়ে আসলেই ভোট পাওয়া যায় না। আমরা এমন প্রার্থীর পক্ষে কিছুতেই কাজ করবো না।

হুমায়ূন কবির বলেন, প্রচার প্রচারণায় বাধা দিচ্ছে ক্ষমতাসীনরা। আমাকে এক প্রকার অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। নানা হুমকি ও মারধর করা হচ্ছে। তাই আমরা মাঠে কাজ করতে পারছি না।

দলের নেতাকর্মীদের বিরোধিতার বিষয়টি স্মরণ করিয়ে দিলে ধানের শীষের প্রার্থী বলেন, একটি স্বার্থান্বেষী মহল আমার বিরোধিতা করছে। তারা আমার কাছ থেকে আর্থিক সুবিধা নিতে ব্যর্থ হওয়ায় এলোমেলো কথাবার্তা বলে বেড়াচ্ছে।

এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বর্তমান মেয়র এবিএম গোলাম কবির। এছাড়া উপজেলা যুবলীগের সদ্য বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক মাহামুদুল হাসান মহসিন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জগ প্রতীক নিয়ে মাঠে আছেন।

স্বাআলো/আরবিএ