নববর্ষের ফুলেল শুভেচ্ছা

২০২০ সালের শেষ সূর্যাস্তের প্রায় ১৩ ঘন্টা পর উঠেছে নতুন বছর ২০২১ সালের সূর্য। সেই সাথে মহাকালের গর্ভে হারিয়ে গেল একটি বছর। দিনপঞ্জির হিসেব অনুযায়ী আজ ২০২১ সালের পহেলা জানুয়ারি। ঘড়ি যার আগমনী বার্তা ঘোষণা করেছিল রাত ১২টা ০১ মিনিটে। স্বাগত ২০২১।

বিদায়ী বছরে মহামারী করোনার ছোবলে আমরা আমাদের কয়েকজন খ্যাতিমান সন্তানসহ অনেককে হারিয়েছি। স্বজন হারানোর দুঃখ-বেদনাসহ পুরোনো সব জ্বরা-জঞ্জাল দূরে ঠেলে নতুন বছর নিয়ে আসে নতুন প্রেরণা আর স্বপ্ন। সেই স্বপ্ন কতটুকু বাস্তবে রূপ পায় তা দিন গেলে বোঝা যায়। বাঙালি জাতি স্বপ্ন বিলাসী। তারা স্বপ্ন দেখতে ভালোবাসে। আর স্বপ্ন দেখে বলেই এ উপমহাদেশে এক সময় এ জাতি অগ্রগামী ছিল। কথায় ছিল ‘হোয়াট বেঙ্গল থিংস টুডে ইন্ডিয়া থিংস টুমরো’। এই স্বপ্ন জাতিকে দেখাতে হয়।

যে ব্যক্তি বা জাতি স্বপ্ন দেখে না তার দ্বারা কিছুই সৃষ্টি হয় না। সেই স্বপ্ন দেখাচ্ছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। পদ্মা সেতুর মতো একটি দূরূহ কাজ যা ছিল স্বপ্নের অতীত তা বিদায়ী বছরে দৃশ্যমান হয়েছে। নতুন বছরের শেষের দিকে এর সুফল ভোগ করবে এ দেশের মানুষ। এ কাজের মাধ্যমে দেশবাসী যে কোনো কঠিন কাজের স্বপ্ন দেখবে তাতে কোনো সন্দেহ নেই। নতুন বছরের শুরুটা তাই এ দেশবাসী উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে নতুন স্বপ্নে নতুন বছরে এগিয়ে যাবে।

দেশবাসীর বেশ কিছু শোকের ঘটনা ঘটেছে বিদায়ী বছরে। আমরা হারিয়েছি খ্যাতিমান রাজনীতিক আওয়ামী নেতা স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, প্রথম মহিলা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন, সিলেট পৌর মেয়র বদরউদ্দিন আহমেদ কামরান, সংসদ সদস্য ইসমত আরা সাদেক, শিক্ষাবিদ ড. ইমাজ ইদ্দন, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও খ্যাতিমান সাংবাদিক কামাল লোহানী, লেখক ও শিক্ষাবিদ বোরহান উদ্দিন খান জাহাঙ্গীরসহ অনেককে। ‘জন্মিলে মরিতে হয়’ তাই দেশবাসী তাদের মৃত্যুতে শোকে ভেঙে না পড়ে দেশবাসীও নতুন বছরটিতে এগিয়ে যাবে এ প্রত্যয় আছে সবার।

জননন্দিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০২০ সালে দেশবাসী দেশ্রপ্রেমের যে দৃষ্টান্ত রেখে চলেছেন তা অব্যাহত থাকবে এ দৃঢ় বিশ্বাস আমাদেও আছে। এ ক্ষেত্রে ২০২১ সালেও তার ব্যত্যয় ঘটবে না। নতুন বছরটিতে এগিয়ে যাবে মানুষ। চলার পথে কিছু যে সমস্যা থাকবে না তা নয়। তবু আমরা আশায় বুক বাধি।

আমাদের যে সমস্যা আছে, আছে যে সংকট তা সবই কেটে যাবে নতুন বছরে। নতুন সূর্যের আলোয় প্রাণ পাবে মানুষ। আর এ জন্য দরকার রাজনৈতিক সহনশীলতা। এ ক্ষেত্রে গণতন্ত্রের পূর্ণ বিকাশ অন্যতম শর্ত। যার দুটোই আজ দেশে সুপ্রতিষ্ঠিত। দেশ ও জনগণের কল্যাণে গণতন্ত্রের এ অগ্রযাত্রা সমুন্নত থাকবে। আমাদের নতুন বছরের পথচলা শুভ হবে। আমরা এ শুভ যাত্রা কামনা করি। বছরের নতুন দিনে এই সাথে সকলকে ফুলেল শুভেচ্ছা।

স্বাআলো/আরবিএ

.

Author