ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানালেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা

আজ অমর একুশে ফেব্রুয়ারি। মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। রক্তস্নানের মধ্য দিয়ে ভাষার মর্যাদা প্রতিষ্ঠার দিন।

১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি সালাম, জব্বার, শফিক, বরকত, রফিক প্রমুখের তাজা রক্তে রঞ্জিত হয়েছিলো ঢাকার রাজপথ। যার ফলে বাংলা ভাষা পায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদা। জাতি আজ শ্রদ্ধাভরে সেইসব শহীদদের স্মরণ করছে। দিবসটি শুধু বাঙালির নয়, পৃথিবীর সব ভাষাভাষী মানুষের।

পৃথিবীর কয়েক হাজার ভাষাভাষী মানুষও দিনটি শ্রদ্ধাভরে পালন করছেন। ক্রিকেটাররাও ভাষা শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন ও স্মরণ করছে একুশের আত্মত্যাগ ও মহিমা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাকিব আল হাসান লিখেন, সবারই রয়েছে তার মাতৃভাষায় কথা বলার অধিকার। আর আমাদের সেই অধিকার রক্ষার জন্য ১৯৫২ সালের এই দিনে আমাদের ভাষা সৈনিকেরা প্রাণের মায়া ত্যাগ করে নেমে এসেছিলেন রাজপথে। স্মরণ করছি সকল ভাষাসৈনিকদের, যাদের জন্য আজ গর্ব করে কথা বলতে পারি বাংলা ভাষায়।

মাতৃভাষা দিবস স্মরণে ডাকটিকিট অবমুক্ত

জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল লিখেন, সবাইকে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের শুভেচ্ছা।

মুশফিকুর রহিম লিখেন, ভাষা শহীদদের প্রতি জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা ও দোয়া…যাদের আত্মত্যাগে আমরা পেয়েছি আমাদের মাতৃভাষা “বাংলা”। সবাইকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের শুভেচ্ছা।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের বার্তা, যাদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে আজ আমরা মাতৃভাষায় কথা বলতে পারছি তাদের প্রতি সশ্রদ্ধ সালাম। সবাইকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের শুভেচ্ছা ।

বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় যশোরে ভাষা শহীদদের স্মরণ

সৌম্য সরকার লিখেন, ওরা আসবে চুপি চুপি যারা এই দেশটাকে ভালোবেসে দিয়ে গেছে প্রাণ।… সবাইকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের রক্তিম শুভেচ্ছা। সেই সাথে স্মরণ করছি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের যারা শত্রুর তাজা বুলেটকে উপেক্ষা করে আমাদের জন্য ছিনিয়ে নিয়ে এসেছেন এই প্রাণের ভাষাকে, এই বাংলা ভাষাকে।

স্পিন অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজের বার্তা, আপনার মাতৃভাষা এই পৃথিবীতে আপনার পরিচয়। কখনো আপনার মাতৃভাষাকে উপেক্ষা করবেন না। অন্যকে ভালবাসার চেয়ে নিজের ভাষা পছন্দ করুন। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের আন্তরিক শুভেচ্ছা।

স্বাআলো/এস