মার্চের মাঝামাঝি হতে পারে যশোর পৌরসভার ভোট

আগামী মার্চ মাসেই যশোর পৌরসভার ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ১৫ থেকে ২০ মার্চের মধ্যে ভোট গ্রহণের দিন নির্ধারণ করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা।

আজ সোমবার যশোর সার্কিট হাউজে যশোর-ঝিনাইদহ জেলার পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন উপলক্ষে আইন-শৃংখলা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এই কথা বলেন তিনি।

নুরুল হুদা বলেন, মামলার কারণে যশোর পৌরসভার ভোট গ্রহণ ২৮ ফেব্রুয়ারিতে স্থগিত করা হয়। ইতিমধ্যে মামলার উচ্চ আদালতে নিষ্পত্তি হয়ে গেছে। যশোর পৌরসভার ভোট গ্রহণে নতুন করে আর কোন আইনি বাঁধা নেই। মার্চ মাসের মধ্যেই ভোট গ্রহণ সম্পন্ন করা হবে। নিয়ম অনুসারে আবারো প্রার্থীরা প্রচারণার সুযোগ পাবেন। প্রার্থীদের প্রচারণা যে কয়েকদিন স্থগিত করা হয়েছিল বিধি মোতাবেধ সেই কয়েকদিন বর্ধিত করা হবে।

তিনি আরো বলেন, ২৮ ফেব্রুয়ারি যশোরের কেশবপুর, ঝিনাইদহের মহেশপুর ও কালিগঞ্জ পৌরসভার ভোট গ্রহণ সম্পন্ন করা হবে। ওই ভোটে হুমকি নেই। কোন বাঁধাও নেই। ইভিএম পদ্ধতিতে সেখানে ভোট গ্রহণ করা হবে। সুষ্ঠুভাবে ভোট নেয়ার সব ব্যবস্থা সম্পন্ন করা হয়েছে। ২৪ থেকে ২৬ ফেব্রুয়ারি তিন দিনব্যাপী কর্মকর্তাদের ইভিএমের উপর প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।

আরো পড়ুন>>> যশোর পৌরসভা নির্বাচনের স্থগিতাদেশ আপিল বিভাগে বাতিল

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, আইডিইএ প্রকল্প পরিচালক ব্রিগেডিয়াল জেনারেল আবুল কাশে মোহাম্মদ ফজলুল কাদের, যশোরের জেলা প্রশাসক তজিমুল ইসলাম খান, পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ার্দ্দার, ঝিনইদহের জেলা প্রশাসক মুনতাসিরুল ইসলাম মামুন, পুলিশ সুপার সরোজ কুমার নাথ, খুলনা বিভাগীয় নির্বাচন কর্মকর্তা ইউনুস আলী, যশোর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির, ঝিনইদহ জেলা নির্বাচন কর্তকর্তা রোকুন্নুজ্জামান প্রমুখ।

স্বাআলো/আরবিএ