ধারের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ বন্ধুর স্ত্রীকে টানা ৩ মাস ধর্ষণ!

গাইবান্ধায় ধারের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় পলাতক বন্ধুর স্ত্রীকে টানা তিন মাস ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে গাইবান্ধা জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় আগের দিন সুন্দরগঞ্জ থানায় বাদী হয়ে একটি মামলা করেন সেই নারী। রাতেই ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছেন সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল্লাহিল জামান।

চৌগাছায় বাড়িতে ডেকে নিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ, চুরির অপবাদ দিয়ে মারপিট

গ্রেফতার দাদন ব্যবসায়ী আনারুল ইসলাম (২৫) চণ্ডিপুর ইউনিয়নের উজান বোচাগাড়ি গ্রামের বাসিন্দা।

সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল্লাহিল জামান জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতের মাধ্যমে শনিবার বিকালে আনারুলকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলার বাদী ওই নারী জানান, আনারুল তার স্বামীর ঘনিষ্ট বন্ধু। তার স্বামীকে আনারুল প্রায়ই জুয়ার আসরে নিয়ে গিয়ে টাকা ধার দিতেন। এক পর্যায়ে ধারের টাকার পরিমাণ বেড়ে যায়।

সেই ধারের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে তার স্বামী বাড়ি থেকে পালিয়ে যান। আনারুল সেই ধারের টাকার জন্য তাদের বাড়িতে যাতায়াত করতে থাকেন।

মামলার বাদী বলেন, মাস তিনেক আগে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে রাত ১১টার দিকে আনারুল তার শোবার ঘরে ঢুকে তাকে জোর করে ধর্ষণ করেন এবং সেই দৃশ্য ভিডিও করেন।

সেই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে আনারুল টানা তিন মাস ধরে তাকে ধর্ষণ করে আসছেন বলে তিনি অভিযোগ করেন।

ওই নারী আরো জানান, এর মধ্যে তার স্বামী বাড়ি ফিরে আসলে উপজেলা সাব রেজিস্ট্রার অফিসে নিয়ে গিয়ে তাদের বসতভিটার সাড়ে সাত শতক জমি দলিল করে নেন সেই গ্রেফতার যুবক।

স্বাআলো/এসএ