মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন আমীর

প্রতিটি মানুষের স্বপ্ন থাকে। কিন্তু স্বপ্নের পথে পা বাড়ালেই একের পর এক আসতে থাকে প্রতিবন্ধকতা। যে ব্যক্তি এসব প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে এগিয়ে যাবেন তিনিই হবেন সফল। এমনই একজন মানুষ যিনি নিজের গ্রামের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। তার পরিশ্রম, সাহস, ইচ্ছাশক্তি, একাগ্রহতা আর প্রতিভার সমন্বয়ে সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য, সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড সঠিক ও সুচারুভাবে বাস্তবায়নের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। কাজে সফলও হয়েছেন। এলাকার হতদরিদ্র মানুষের উন্নয়নে তার কাজ করে যাওয়া সব মহলেই প্রশংসা কুড়িয়েছে।

রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন, সামাজিক উন্নয়নসহ অসহায় মানুষের পাশে থেকে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়েছেন তিনি। মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার বাখেরা গ্রামের আমিরুল ইসলাম আমীর। সেনাবাহিনীর চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের পর এলাকার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। তার আপ্রাণ প্রচেষ্টায় বাখেরা গ্রামের প্রতিটি রাস্তা এলজিইডির মাধ্যমে পাঁকা করণ হয়েছে বলে জানিয়েছেন তারই গ্রামের মানুষ। সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরণে নিরন্তর মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন আমীর।

এ ব্যাপারে সবেক ইউপি মেম্বার শান্তি রাম বিশ্বাস জানান, আগে মন্দিরে যেতে তাদের খুব কষ্ট হতো। মন্দিরের রাস্তা পাকাসহ গ্রামের ৫টি রাস্তা তাদের গ্রামের সন্তান আমিরুল ইসলাম আমীরের প্রচেষ্টায় ও সরকারিভাবে পাকাকরণ হয়েছে, ফলে যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে।

আরো পড়ুন>>> মাগুরায় গড়াই নদীর ভাঙন ঠেকাতে ৮১৩ কোটি টাকার প্রকল্প

আমিরুল ইসমাম আমীর বলেন, চাকরি জীবন শেষে ২০১২ সাল থেকে এলজিইডির মাধ্যমে গ্রামের রাস্তা পাকা করার জন্য কাজ করে যাচ্ছি। ইতোমধ্যে গ্রামের প্রতিটি রাস্তা পাকাকরণ হয়েছে। আমার অবস্থান থেকে যতটুকু পারি মানুষকে সহযোগিতা করার চেষ্টা করে থাকি। যতদিন বেঁচে থাকবো এলাকার উন্নয়নের কাজ করে যাব।

স্বাআলো/আরবিএ