বাগেরহাটে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, মাদরাসাছাত্র গ্রেফতার

বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলায় মাদরাসাছাত্র কর্তৃক হিন্দু সম্প্রদায়ের এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

বুধবার সকালে মাদরাসাছাত্র সবুজ শেখ (১৫) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আর ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার রাতে উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নে।

মেয়েটি স্থানীয় সুন্দরবন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী।

ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে বিচারের দাবিতে বুধবার সকালে শরণখোলা থানায় একটি মামলা হয়েছে।

গলায় ছুরি ধরে মেয়েকে ধর্ষণ, বাবার মৃত্যুদণ্ড

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, ওই ছাত্রী নানা বাড়ি থেকে লেখাপড়া করে। প্রতিবেশী বগী গ্রামের লিটন শেখের ছেলে সুন্দরবন বগী ইসলামিয়া দাখিল মাদরসার ১০ শ্রেণির ছাত্র সবুজ শেখ (১৫) তাকে বিভিন্ন সময় উত্ত্যক্ত করতো। এক পর্যায়ে গত মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে ওই ছাত্রী মামা বাড়ি থেকে নানা বাড়ি ফেরার সময় সবুজ শেখ ও তার তিন বন্ধু মিলে জোরপূর্বক পার্শ্ববর্তী বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় মেয়েটির চিৎকারে তার মামি ঘর থেকে বেরিয়ে এলে ধর্ষকরা দৌড়ে পালিয়ে যায়।

শরণখোলা থানার ওসি সাইদুর রহমান জানান, এ ঘটনায় মেয়েটির মামা বাদী হয়ে সবুজ শেখসহ অজ্ঞাত আরো দুই জনের নামে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

‘বুধবার সকালে প্রধান আসামি সবুজ শেখকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মেয়েটিকে পুলিশি হেফাজতে ডাক্তারী পরীক্ষা করাতে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

স্বাআলো/এস